আজকাল ওয়েবডেস্ক: এ যেন সেই হীরক রাজার দেশের শেষ দৃশ্যের প্রতিফলন। শনিবার ছিল আমেরিকার স্বাধীনতা দিবস। আর সেই দিনই যেন আমেরিকাকে নতুন করে স্বাধীন করতে চাইলেন বাল্টিমোরের প্রতিবাদীরা। লিটল্‌ ইতালির কাছে বাল্টিমোরের ইনার বে অঞ্চলে ইতালীয় অভিযাত্রী ক্রিস্টোফার কলোম্বাসের সুবিশাল মূর্তিকে  শনিবার রাতে দড়ি বেঁধে টেনে নামিয়ে গুঁড়িয়ে দিলেন ‘‌ব্ল্যাক লাইভস্‌ ম্যাটার’‌–এর প্রতিবাদীরা।
ইতিহাসে আমেরিকা ভূখণ্ডের আবিষ্কারক বলে উল্লিখিত কলোম্বাসের বিরুদ্ধে একদল ঐতিহাসিক বরাবরই অভিযোগ করেছেন, যে তিনি আমেরিকার কৃষ্ণাঙ্গ আদিবাসীদের উপর যথেচ্ছ অত্যাচার করেছিলেন। তাদের ক্রীতদাস বানিয়ে রেখেছিলেন। ফ্লয়েডকাণ্ডের পর কৃষ্ণাঙ্গদের উপর অত্যাচারের প্রতিবাদে আমেরিকাজুড়ে চলা বিক্ষোভে মাঝেমাঝেই দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে কলোম্বাসের মূর্তি ভাঙার খবর মিলেছে। ১৯৮৪ সালে ইতালীয় বাসিন্দা অধ্যুষিত লিটল্‌ ইতালি লাগোয়া বাল্টিমোরের ইনার বে অঞ্চলে সেটি স্থাপন করা হয়েছিল।
মূর্তি ভাঙার ঘটনায় ডেমোক্র‌্যাট দলের মুখপাত্র বলেছেন, দেশে যে মানুষের ক্ষোভ, অসন্তোষ বাড়ছে এভাবে প্রতিবাদ তারই প্রতিফলন। তাঁরা এই বিক্ষোভকে সমর্থন করবেন বলে জানিয়েছেন ডেমোক্র‌্যাট নেতা। তিনি আরও বলেছেন, বাল্টিমোর পুলিশের কাজ জনতার পরিষেবা দেওয়া, শ্বেতাঙ্গদের প্রতি আনুগত্য প্রকাশ করে মূর্তি রক্ষা করা নয়। এমনকি বাল্টিমোরের কাউন্সিল প্রেসিডেন্ট ব্র‌্যান্ডন স্কটও বলেন, তিনি ২০১৭ সালেই প্রাক্তন মেয়রকে বলেছিলেন ওই মূর্তিটি সরিয়ে দিতে।

জনপ্রিয়

Back To Top