আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ ‌মানবাধিকার সংকট ভয়ঙ্কর আকার ধারণ করেছে চীনে। বর্তমান সময়ে দাঁড়িয়ে মানবাধিকার সংকটের সবচেয়ে খারাপ নমুনা তৈরি করছে চীন। জাতিগত ও ধর্মীয় সংখ্যালঘুদের মানবাধিকার লঙ্ঘনকে উৎসাহ দেওয়ার অভিযোগে বেজিংকে কড়া ভাষায় আক্রমন করে একথা বললেন আমেরিকার স্বরাষ্ট্রসচিব মাইক পম্পিও। তিনি জানিয়েছেন, ‘‌ধর্মীয় স্বাধীনতার ক্ষেত্রে সরকারি হস্তক্ষেপের তীব্র বিরোধিতা করার অভিযোগে গীর্জার এক ধর্মযাজককে গত বছর গ্রেপ্তার করেছিল পুলিশ। তিনি এখনও জেলে বন্দী। চীন আজ এই পরিস্থিতিতে এসে দাঁড়িয়েছে। যেখানে মানুষের কোনও স্বাধীনতা নেই। সরকারের বিরুদ্ধাচরণ করলেই তাঁকে বন্দী করা হয়। অন্য কোনও ধর্মীয় মতাদর্শে বিশ্বাসী হলেই তাঁর ওপর নেমে আসে রাষ্ট্রীয় সন্ত্রাস।’‌ 
সংবাদমাধ্যমে তিনি বলেছেন, ‘‌চীন সরকার প্রায় ১০ লাখের মতো উইগর মুসলিমকে পশ্চিমাঞ্চলীয় শিনজিয়াং অঞ্চলে কয়েকটি বন্দী শিবিরের ভেতরে আটকে রেখেছে। একইসাথে শিনজিয়াং প্রদেশে বসবাসকারী লোকজনের ওপর চীন সরকারের নিপীড়নমূলক নজরদারির তথ্যপ্রমাণ ক্রমশ স্পষ্ট হয়ে উঠছে। শিনজিয়াং-এ কী হচ্ছে, সেব্যাপারে চীন সরকারের পক্ষ থেকে কখনও পরিষ্কার করে ব্যাখ্যা দেওয়া হয়নি। সেখানে যেহেতু সরকারের কঠোর নিয়ন্ত্রণ, সেকারণে আসলেই কী হচ্ছে সেবিষয়ে নিরপেক্ষ খবর পাওয়া খুব কঠিন।’‌ ‌‌

জনপ্রিয়

Back To Top