আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ চীনের আদর্শ অনেকদিন ধরে পৃথিবীর বামপন্থী মানুষকে উদ্বুদ্ধ করেছে। কিন্তু কখন সে বিচ্যুত হয়েছে আদর্শে, কখন সে সাধারণের উপর নামিয়ে এনেছে শাসনের তীব্রতা, তা বোধহয় শাসক হিসেবে মনেও নেই তার। কিন্তু চীনের গণতন্ত্রপ্রিয় মানুষ তাদের অধিকার ছেড়ে দিতে নারাজ। তাই বৃষ্টি, প্রাকৃতিক দুর্যোগ উপেক্ষা করেই গত ১০ সপ্তাহ ধরে তারা চীন নেমেছে রাস্তায়। বেজিং শহর বারবার লোকে লোকারণ্য হয়েছে গণতান্ত্রিক অধিকারের দাবিতে। বৃষ্টি উপেক্ষা করে লাখে লাখে লোক নেমে এসেছেন পোস্টার, ব্যানার হাতে, তুলেছেন স্লোগান। বিক্ষোভকারীরা এমন একটি আইনের প্রতিবাদ করছিলেন যা কার্যকর হলে হংকং-এর কোনও ব্যক্তিকে বিচারের জন্য চীনের মূলভূমিতে নিয়ে যাওয়ার সুযোগ করে পাবে প্রশাসন। অভিযোগ, তাহলে হংকংয়ের নিজস্ব বিচারব্যবস্থা ভেঙে পড়তে পারে বলে অনেকেই মনে করছেন। তীব্র প্রতিবাদের কারণেই ইতিমধ্যে এই  বিলটি স্থগিত করে দেয় সরকার। তা সত্ত্বেও বিক্ষোভ চলতে থাকে এবং প্রশাসনিক প্রধান ক্যারি ল্যামের পদত্যাগের দাবি ওঠে। বিক্ষোভের মধ্যেই শেনজেন সীমান্তে নিরাপত্তা বৃদ্ধি করেছে চীন। সন্ত্রাসবাদী কার্যক্রম নিয়ন্ত্রণ করতেই এই পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে বলে বেজিং জানিয়েছে। বিক্ষোভকারীরা জানিয়েছেন, ‘‌আমরা দু’‌মাস ধরে লড়াই করছি। কিন্তু আমাদের সরকার তা সত্ত্বেও সাড়া দিচ্ছে না। দাবি পূরণ না হওয়া পর্যন্ত আমরা বিক্ষোভ চালিয়ে যাব।’‌

‌‌

জনপ্রিয়

Back To Top