আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ আবার করোনাভাইরাসের দাপট বাড়ছে চীনে। গত কয়েকদিনে নতুন করে বেশ কয়েকজন করোনা আক্রান্তের হদিশ মিলেছে রাজধানী বেজিংয়ের দক্ষিণাংশে। সেকারণে বুধবার শহরের একাংশে নতুন করে লকডাউন ঘোষণা করা হল। ফলে নতুন করে গৃহবন্দি থাকতে হবে ১৭ লক্ষ মানুষকে। বেজিংয়ের দক্ষিণের জেলা ড্যাক্সিংয়ে নতুন করে ছ’জন করোনা আক্রান্তের হদিশ পাওয়া গিয়েছে। এর ফলে বেজিংয়ে মোট আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১৫। অন্যদিকে, চলতি বছরের জানুয়ারি থেকে চীনে এখনও পর্যন্ত নতুন করে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ১০০০ ছাড়িয়েছে। তিন সপ্তাহ বাদেই আবার চীনা নববর্ষ। তার আগে আক্রান্তের সংখ্যা যাতে আরও বৃদ্ধি না পায়, সেজন্যই নতুন করে বেজিংয়ের একাংশে লকডাউন ঘোষণা।
ইতিমধ্যে ড্যাক্সিং এয়ারপোর্টও বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। যে কমপ্লেক্সে ওই আক্রান্তদের হদিশ মিলেছে সেখানকার বাসিন্দাদের বাইরে বেরোতে নিষেধ করা হয়েছে। সমস্ত পড়ুয়াদের বাড়িতে থাকতে বলা হয়েছে। জন সমাগম হয় এরকম এলাকা, অফিস, হোটেল, রেস্তোরাঁ, কারখানা এবং সমস্ত সুপারমার্কেট বন্ধ রাখার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। এখানেই শেষ নয়, বিদেশ থেকে কেউ বেজিংয়ে এলে তাঁকে বাধ্যতামূলক ২১ দিনের কোয়ারেন্টিনে থাকতে হবে। এর মধ্যে ১৪ দিন ইনস্টিটিউশনাল কোয়ারেন্টিন এবং ৭ দিন বাড়িতে কোয়ারেন্টিন। এরপর ওই ব্যক্তি বাইরে বেরোনোর অনুমতি পেলেও পরবর্তী ৭ দিন ভিড় রয়েছে এমন স্থানে যেতে পারবেন না। অর্থাৎ প্রায় একমাসের কোয়ারেন্টিনের বিধি তাঁকে মানতে হবে।

জনপ্রিয়

Back To Top