আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ পাঁচ মাসের মধ্যে ইথিওপিয়া এবং ইন্দোনেশিয়ায় দুটি মারাত্মক দুর্ঘটনা। মৃত্যু কয়েকশো মানুষের। তারপর থেকেই বোয়িং ৭৩৭ ম্যাক্স বিমানগুলি যেন আকাশ–আতঙ্কের সমার্থক শব্দ হয়ে উঠেছে। অকালমৃত্যু এড়াতে অনেক যাত্রীই এখন বোয়ি ৭৩৭ ম্যাক্সে যাত্রা এড়িয়ে যাচ্ছেন। যাত্রীরাই শুধু নয়, পাইলট সহ অন্য বিমানকর্মীরাও বোয়িং ৭৩৭ ম্যাক্সে ডিউটি করতে চাইছেন না। ভারত, চীন সহ বহু দেশ বোয়িং বিমানগুলির চলাচল স্থগিত করে দিয়েছে।
সবার আস্থা ফেরাতে তাই নতুন পদক্ষেপ করছে আমেরিকার শিকাগোর বিমান কোম্পানি বোয়িং। দুটি দুর্ঘটনার তথ্য সংক্রান্ত সফ্‌টওয়্যার আপডেট করে ফেডারেল এভিয়েশন অ্যাডমিনিস্ট্রেশনকে রিপোর্ট জমা দেবে। আগামী ২৩ তারিখ বিশ্ব নিয়ন্ত্রকদের শীর্ষ সম্মেলনে সেই রিপোর্ট দেখে শংসাপত্র মিলতে পারে বোয়িং–এর যাতে ৭৩৭ ম্যাক্স বিমানগুলি আবার আকাশে উড়তে পারে। আশাবাদী বোয়িং বিশেষজ্ঞরা। কারণ নিরাপত্তা নিয়ে যাত্রী থেকে শুরু করে বিমানকর্মীদের আস্থা ফেরানোই মূল উদ্দেশ্য বোয়িং কোম্পানির। মনে করছে কোম্পানি কর্তৃপক্ষ এবং বিশেষজ্ঞরাও।    

জনপ্রিয়

Back To Top