আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ বিমানের ফায়ার অ্যালার্ম বন্ধ করে শৌচাগারে সিগারেট খেতে গিয়ে ধরা পড়লেন এক ব্যক্তি। ঘটনাটি ঘটে রবিবার কাতার–মুম্বইগামী একটি বিমানে। ধৃত ব্যক্তির নাম জেরোম জেসি। কেরলের তিরুবনন্তপুরমের বাসিন্দা। কাতারের দোহা শহরে গাড়ি চালান তিনি। ওই বিমানে চেপে বাড়ি ফেরার পথে এই কান্ড ঘটিয়ে ফেলেন তিনি। পুলিশ সূত্রে খবর, দোহা বিমানবন্দর থেকেই সিগারেট ও লাইটার কিনে বিমানবন্দরে ঢুকেছিলেন তিনি।  বিমানবন্দরে সিগারেট ও লাইটার একেবাড়ে নিষিদ্ধ। তারপরেও নিরাপত্তারক্ষীদের নজর এড়িয়ে সিগারেট ও লাইটার নিয়ে বিমানে উঠে পড়েছিলেন তিনি। রাত ২টো থেকে ৩টের মধ্যে নিজের আসন ছেড়ে শৌচাগারে যান। শৌচাগারের ফায়ার অ্যালার্ম বন্ধ করে দুটো সিগারেটও খান তিনি। বিমানের ফায়ার অ্যালার্ম না বাজলেও ককপিটে পাইলটের কাছে একটি অ্যালার্ম বাজতেই বিমানের নিরাপত্তা কর্মীরা ছুটে যান শৌচাগারের দিকে। তখনই ধরা পড়েন জেরোম। বিমানটি মুম্বই পৌঁছতেই সিআইএসএফ ও মুম্বই পুলিশ গ্রেপ্তার করে তাঁকে। বিমানের অন্য যাত্রীদের বিপদের মুখে ঠেলে দেওয়ার জন্য ভারতীয় দন্ডবিধির বেশ কয়েকটি ধারায় জেরোমের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করে পুলিশ। আদালতেও তোলা হয় তাঁকে। যদিও ১৫০০০ টাকা জরিমানা দেওয়ার পরই তাঁকে জামিন দেয় আদালত। 
সিআইএসএফ–র আধিকারিক হেমেন্দ্র সিং সংবাদমাধ্যমে বলেছেন, ‘‌নিরাপত্তারক্ষীদের নজর এড়িয়ে ওই ব্যক্তি কীভাবে সিগারেট ও লাইটার নিয়ে বিমানে উঠে পড়েছিলেন, আমরা সেটাই বুঝতে পারছিনা।’‌  

জনপ্রিয়

Back To Top