আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ ভয়াবহ ভূমিকম্পে কেঁপে উঠল তুরস্ক এবং গ্রিসের একাংশ। রিখটার স্কেলে যার তীব্রতা ৭.‌০। ঘটনায় এখনও পর্যন্ত ২২ জনের মৃত্যু হয়েছে। আহত অন্তত ১০০–র বেশি। শুক্রবার বিকেলে মর্মান্তিক দুর্ঘটনাটি ঘটেছে। উদ্ধারকার্য শুরু হয়েছে। ঘটনায় সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত তুরস্কের ইজমির প্রদেশ। তবে মৃত বা আহতের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে বলেই মনে করা হচ্ছে। ইতিমধ্যে বিবৃতি দিয়েছেন তুরস্কের স্বাস্থ্যমন্ত্রী। এছাড়া টুইট করেছেন প্রেসিডেন্ট রেসেপ তায়েপ এরদোগানও। 
জানা গিয়েছে, ভূমিকম্পের উৎসস্থল সামোস নামে গ্রীসের একটি দ্বীপ থেকে ১৪ কিলোমিটার উত্তরপূর্ব দিকের একটি জায়গা। তবে ঘটনায় সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত তুরস্কের পশ্চিমাংশের এই ইজমির প্রদেশ। ভূমিকম্পের তীব্রতায় ভেঙে পড়েছে অন্তত ২০টি বড় বড় বিল্ডিং। অনেকেই তাঁর নিচে চাপা পড়ে আছেন। তাই  মৃতের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে। এছাড়া সমুদ্র নিকটবর্তী এলাকা হওয়ায় সুনামির সতর্কতাও জারি হয়েছে। এছাড়া গ্রিসের সামোস দ্বীপের বেশ কিছু জায়গায় জলোচ্ছ্বাসও লক্ষ্য করা গিয়েছে। তুরস্কের স্বাস্থ্যমন্ত্রী টুইট করে জানিয়েছেন, ইতিমধ্যে ঘটনাস্থলে ৩৮টি অ্যাম্বুলেন্স, দু’‌টি অ্যাম্বুলেন্স হেলিকপ্টার এবং ৩৫টি মেডিক্যাল টিমকে উদ্ধারকার্যে নামানো হয়েছে।
এদিকে, সোশ্যাল মিডিয়ায় ইতিমধ্যে ভাইরাল হয়েছে ভূমিকম্পের সময়ের একাধিক ভিডিও। যা দেখে আতঙ্কিত হয়ে পড়েন নেটিজেনরা। কোথাও দেখা যাচ্ছে, কাঁপতে কাঁপতে হুড়মুড়িয়ে ভেঙে পড়ছে বাড়ি। কোথাও আবার সমুদ্রের জলোচ্ছ্বাসে বোট পাড়ে চলে এসেছে।

জনপ্রিয়

Back To Top