আজকালের প্রতিবেদন: করোনার প্রাথমিক লক্ষণ, কীভাবে তার প্রতিরোধ এবং গোটা বিশ্বের সঙ্গে দেশের রাজ্যগুলির কোথায় কত রোগী আছে তা এবার হাতের মুঠোয়। একটি বিশেষ ‘‌সফটঅয়্যার প্রোগ্রাম’–এর‌ মাধ্যমে জেনে নেওয়া যাবে এর সমস্ত খঁুটিনাটি। ‘‌কোভিড–১৯ সহকারী’‌ নামে এই বিশেষ প্রোগ্রামটি বানিয়েছে টেকনো ইন্টারন্যাশনাল নিউ টাউনের তথ্য–প্রযুক্তি বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের পড়ুয়া ঋষভকুমার মিশ্র। প্রোগ্রামটির লিঙ্কটি হল https://youtube.be/V7SpazfTWgO। মোবাইল ফোন বা কম্পিউটারে এই‌‌ লিঙ্কটি অনুসরণ করলেই পাওয়া যাবে করোনা সংক্রান্ত যাবতীয় প্রশ্নের উত্তর। এই বিভাগেরই অধ্যাপক ড.‌ নীলাঞ্জন দে–‌র তত্ত্বাবধানে এই বিশেষ প্রোগ্রামটি তৈরি। তিনি জানিয়েছেন, সঠিক তথ্য যদি সঠিক সময়ে হাতে থাকে তবে প্রস্তুতি নিতে অনেক সুবিধা হয় এবং মানুষ আতঙ্কিতও কম হয়। যেহেতু এর মধ্যে প্রতিনিয়ত তথ্য জমা হবে বা এটি একটি ‘‌অটোমেটেড সফটঅয়্যার প্রোগ্রাম’,‌ তাই ব্যবহারকারী তাৎক্ষণিক এবং সরকার স্বীকৃত তথ্য জানতে পারবেন। তিনি বলেন, ঋষভের এই প্রয়াস আশা করা যায় সাধারণ মানুষের কাছে অতি দ্রুত বেশ কার্যকরী হয়ে উঠবে। 
কেন এই উদ্যোগ?‌ এ বিষয়ে নীলাঞ্জন জানিয়েছেন, ফেব্রুয়ারি মাসেই আমরা এই রোগ কতটা ভয়ঙ্কর এবং কীভাবে ছড়াবে তা নিয়ে আগাম একটি গবেষণাপত্র প্রকাশ করি। এটি তৈরির সময় নানা সূত্র থেকে পাওয়া তথ্য এবং সেই তথ্য সাধারণ মানুষের কাছে কতটা বিশ্বাসযোগ্য তা নিয়ে ভাবনা–চিন্তা শুরু করা হয়। তখনই সমস্ত তথ্যকে এক জায়গায় নিয়ে এসে একটি তথ্যভাণ্ডার গড়ে তোলার বিষয়ে ভাবনা শুরু হয়। যা সাধারণ মানুষ খুব সহজেই ব্যবহার করতে পারবেন। আমাদের এই প্রোগ্রামটির বিশেষত্ব হল, তথ্যের নীচে তার সূত্র বা লিঙ্ক দেওয়া থাকবে। যাতে প্রয়োজন পড়লে ব্যবহারকারী সেই লিঙ্কটিও দেখে নিতে পারেন। প্রতি মুহূর্তেই নতুন নতুন তথ্য এতে যোগ করা হবে। অর্থাৎ কেউ যখন এটি ব্যবহার করবেন তখন একেবারে সাম্প্রতিকতম তথ্যই জানতে পারবেন। এর মাধ্যমে দেশ থেকে বিদেশ, হালফিলের সমস্ত খবরই পাওয়া যাবে। 
পড়ু্য়া ও শিক্ষকদের এর জন্য অভিনন্দন জানিয়েছেন তথ্য–প্রযুক্তি বিভাগের বিভাগীয় প্রধান অধ্যাপক অয়ন চক্রবর্তী। কলেজের অধ্যক্ষ ড.‌ রাধাতমাল গোস্বামী নতুন প্রজন্মের এই মেধাকে অভিনন্দন জানিয়ে প্রকল্পটিকে সবরকম সহযোগিতার আশ্বাস দিয়েছেন। খুব তাড়াতাড়ি এই পরিষেবাটি জনগণের জন্য খুলে দেওয়া হবে বলে টেকনো ইন্টারন্যাশনাল সূত্রে জানা গেছে।

জনপ্রিয়

Back To Top