সাগরিকা দত্তচৌধুরি: দুর্গাপুজো শুরু। বাঙালি এখন আর ষষ্ঠীর অপেক্ষায় থাকে না। তৃতীয়া থেকেই মণ্ডপ প্রদক্ষিণ। পুজোয় তাই বুঝেশুনে খাওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন চিকিৎসকরা। চোখের খেয়ালও রাখতে হবে। দিশা আই হসপিটালের চক্ষু বিশেষজ্ঞ ডাঃ ঈপ্সিতা বসু বলেন, ‘‌পুজোর সময় অতিরিক্ত ভিড়ে ঘোরার ফলে ধুলোবালির দূষণে চোখে বিভিন্ন সংক্রমণ দেখা যায়। অ্যালার্জি, কনজাংটিভাইটিস, ফোলা, লাল হয়ে যায়।’‌ চক্ষু বিশেষজ্ঞ জয়িতা দাশ বলেন, ‘‌দিনে ঠাকুর দেখতে গিয়ে দীর্ঘ সময় লাইনে দাঁড়াতে হলে আল্ট্রাভায়োলেট রশ্মি থেকে বাঁচতে সানগ্লাস পরা জরুরি।  বাইরে জনবহুল জায়গায় লোকের হাতে হাত লেগে কিংবা ভিজে হাত চোখে লাগলে সংক্রমণের আশঙ্কা প্রবল।’‌
পুষ্টিবিদ শম্পা ব্যানার্জি বলেন, ‘সকালে ঘুম থেকে উঠে খালি পেটে আধ চামচ দারুচিনি গুঁড়ো এক গ্লাস জলে মিশিয়ে খেলে একাধিক উপকার মেলে। শরীরে রক্ত সরবরাহ ভাল হয়। বেশি করে সবুজ শাকসবজি এবং অন্তত ৪–৫ রকমের ফল খাওয়া প্রয়োজন। মাছ, ডাল, ডিম, টক দই প্রভৃতি প্রোটিন সমৃদ্ধ খাবার খেয়ে ব্যালান্সড ডায়েট মেনে চলা জরুরি। অবশ্যই দিনে ৮–১০ গ্লাস জল পান করা প্রয়োজন।’‌ বাজারের সস্তা লিপস্টিক ঠোঁটের পক্ষে অত্যন্ত ক্ষতিকর। তাতে সীসা থাকে, যার ক্ষতিকারক পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া রয়েছে। ফর্টিস হাসপাতালের ত্বক রোগ বিশেষজ্ঞ ডাঃ অনুশ্রী গাঙ্গুলি বলেন, ‘লিপস্টিক থেকে অ্যালার্জির সঙ্গে কনট্যাক্ট ডার্মাটাইটিস হতে পারে। ফলে ঠোঁট জ্বালা করে, ফেটে যায়। ম্যাট ফিনিশের চেয়ে ক্রিম ভিত্তিক লিপস্টিক ব্যবহার করা ভাল কারণ ঠোঁটকে ময়শ্চরাইজড রাখে। দীর্ঘদিন ধরে ম্যাট লিপস্টিক ব্যবহারে ঠোঁটের প্রাকৃতিক আর্দ্রতা হারিয়ে যায় এবং শুষ্ক হয়ে অনুজ্জ্বল ও কালো দেখায়।’‌ 

জনপ্রিয়

Back To Top