আজকালের প্রতিবেদন: মিড–‌ডে মিলের প্যাকেটের সঙ্গে বাংলার শিক্ষা পোর্টালে দশম শ্রেণি পর্যন্ত দেওয়া অ্যাক্টিভিটি টাস্কের প্রতিলিপি বা জেরক্স দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিল স্কুল শিক্ষা দপ্তর। ৬ জুলাই থেকে রাজ্য জুড়ে ফের মিড–‌ডে মিল বিলি শুরু হচ্ছে। একই সঙ্গে ক্লাস অনুযায়ী এই টাস্কের প্রতিলিপি অভিভাবকদের দেওয়া হবে।
লকডাউন শুরুর কিছুদিন পরেই বাংলার শিক্ষা পোর্টালে প্রথম থেকে দশম শ্রেণি পর্যন্ত পড়ুয়াদের জন্য বিষয়ভিত্তিক অ্যাক্টিভিটি টাস্ক দেওয়া হয়েছিল। ছাত্রছাত্রীদের স্কুল খোলার পর যা জমা দেওয়ার কথা। কিন্তু প্রযুক্তির ব্যবহার রাজ্যের সর্বত্র সমান ভাবে না পৌঁছনোয় অনেক পড়ুয়ার পক্ষে এই টাস্ক ডাউনলোড করে তার প্রিন্ট আউট বের করা সম্ভব হয়নি। আমফানের পর পরিস্থিতি আরও খারাপ হয়। কিন্তু এপ্রিল এবং মে মাস জুড়ে এই টাস্ক দেওয়া হয়। সম্প্রতিও দেওয়া হয়েছে। এই অবস্থায় ছাত্রছাত্রীরা যাতে কোনওভাবেই ক্ষতিগ্রস্ত না হয় তার জন্য দপ্তরের পক্ষ থেকে এ ব্যাপারে একটি নির্দেশিকা জারি করা হয়েছে। এসআইদের (‌‌অবর স্কুল পরিদর্শক)‌‌ বলা হয়েছে তাঁরা ক্লাস এবং বিষয় ধরে ধরে এই টাস্কের জেরক্স বা প্রিন্ট আউট বের করে নির্দিষ্ট স্কুলের প্রধান শিক্ষকদের দেবেন। তিনি মিড–‌ডে মিল বিলির দিন তা নির্দিষ্ট পড়ুয়ার অভিভাবকদের হাতে তা দেবেন। দপ্তরের এই সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়েছে মাধ্যমিক শিক্ষক ও শিক্ষাকর্মী সমিতি। সমিতির দক্ষিণ ২৪ পরগনার সাধারণ সম্পাদক অনিমেষ হালদার বলেন, ‘‌অ্যাক্টিভিটি টাস্কের হার্ড কপি পড়ুয়াদের কাছে পৌঁছনোর খুব দরকার ছিল। কারণ ৯৫ শতাংশ পড়ুয়ার কাছেই পোর্টাল থেকে ডাউনলোড করা এবং তার প্রিন্ট আউট বের করার সামর্থ্য বা পরিকাঠামো নেই।’‌

জনপ্রিয়

Back To Top