নোভেল করোনাভাইরাসে ক্যান্সার রোগীদের মারাত্মক ঝুঁকি রয়েছে। কারণ তঁাদের রোগ–‌প্রতিরোধ ক্ষমতা অনেক কম থাকে। তাই তঁাদের যদি একবার কোভিড–১৯ সংক্রমণ হয়, তা হলে মৃত্যুর আশঙ্কা অনেক বেশি। ক্যান্সার রোগীদের বাড়িতে পুরোপুরি আইসোলেশনে থাকতে হবে। বাড়ির লোকেদেরও সেটা মাথায় রাখতে হবে। বাজারে তো নয়ই, এমনকী বাড়ির বাইরেও বেরোনো যাবে না। কারণ কোভিড–১৯ সংক্রমণ হলে ক্যান্সার বাড়াবে না এটা ঠিক, কিন্তু একবার আক্রান্ত হলে রোগীকে বঁাচানো মুশকিল। এ ছাড়া যঁার যা ওষুধ চলছে, চালিয়ে যাবেন। হঠাৎ করে কোনও অসুবিধে হলে অবশ্যই চিকিৎসকের কাছে যেতে হবে। নইলে করোনার জন্য না হলেও, ক্যান্সারের জন্যই হয়তো মৃত্যু ঘটে যাবে!‌ যে–‌ক্যান্সারের অস্ত্রোপচারে খুব বেশি রক্ত, আইটিইউ পরিষেবা প্রয়োজন, সেগুলি  কিছু দিনের জন্য স্থগিত রাখা উচিত। যে–রোগীরা পুরোটাই কেমোথেরাপির ওপর নির্ভরশীল, সেই ধরনের রোগীদের কেমোথেরাপি চালিয়ে যেতেই হবে। যঁাদের ঝুঁকি কম, হাসপাতালে আসতে পারছেন না, তঁাদের ওরাল (‌ট্যাবলেট)‌ কেমোথেরাপি বা হরমোন থেরাপি দিতে পারলে ভাল হয়। এতে পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া কম থাকে।ও মাল্টিভিটামিন খাওয়া। জ্বর, সর্দি, কাশি হলে ডাক্তারকে দেখানো। 

জনপ্রিয়

Back To Top