আজকাল ওয়েবডেস্ক: কেন্দ্রের পক্ষ থেকে বুধবার ‌শীর্ষ আদালতে জানানো হয়েছে, চলতি বছরের ৩১ মার্চ পর্যন্ত আধার সংযোগের সময়সীমা থাকলেও, যদি প্রয়োজন হয় তবে সেই সময় বাড়ানো যেতে পারে। দেশের শীর্ষ আদালত এই প্রস্তাব পাওয়ার পর ছাত্রছাত্রীদের জন্য এক গুরুত্বপূর্ণ নির্দেশ দিয়েছেন। সিবিএসসি বোর্ডকে এদিন সুপ্রিম কোর্ট নির্দেশ দিয়েছে আধার পরিচয়কে বাধ্যতামূলক করা যাবে না ২০১৮ সালের নিট পরীক্ষায়। এমনকী সর্বভারতীয় পরীক্ষার ক্ষেত্রেও আধার পরিচয়পত্রকে বাধ্যতামূলক করা যাবে না। শীর্ষ আদালতের এই নির্দেশে জোর ধাক্কা খেল কেন্দ্র বলে মনে করা হচ্ছে। কারণ এখন সব ক্ষেত্রেই আধারকে বাধ্যতামূলক করা হচ্ছে। 
এদিন সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতিদের পাঁচ সদস্যের সাংবিধানিক বেঞ্চ এই নির্দেশ দেওয়ার পাশাপাশি সিবিএসসি বোর্ডকে এই নির্দেশ তাদের ওয়েবসাইটে আপলোডও করতে বলেছেন। কিছুদিন আগে আধারের দপ্তর (‌ইউআইডিএআই)‌ আদালতকে হলফনামা দিয়ে জানায়, সিবিএসসিকে আধার পরিচয়ের ক্ষেত্রে বাধ্যতামূলক বলা হয়নি। নিট পরীক্ষার ক্ষেত্রেও ছাত্রছাত্রীদের আধার নম্বর বাধ্যতামূলক বলা হয়নি। এরপরই সুপ্রিম কোর্টের প্রধান বিচারপতি দীপক মিশ্রের নেতৃত্বাধীন সাংবিধানিক বেঞ্চ নির্দেশ দেন নিট সহ সর্বভারতীয় পরীক্ষার ক্ষেত্রে আধার পরিচয় বাধ্যতামূলক নয়। আর এই নির্দেশ সিবিএসসি বোর্ডের ওয়েবসাইটে আপলোড করতে হবে। 
সুপ্রিম কোর্টের এই নির্দেশের প্রেক্ষিতে অ্যাটর্নি জেনারেল কেকে বেনুগোপাল আদালতকে জানান, জম্মু–কাশ্মীর, মেঘালয় এবং অসমের ক্ষেত্রে বিকল্প হিসাবে অন্যান্য সচিত্র পরিচয়পত্র পরীক্ষার সময় দেখাতে বলা হয়েছে। ‌‌

জনপ্রিয়

Back To Top