‌‌আজকালের প্রতিবেদন: ‘আমি সোশ্যাল ডিসট্যান্স তৈরি করার পক্ষে নই। আমি চাই ফিজিক্যাল ডিসট্যান্স মেনটেন করতে। তাই এই সময়ে আরও বেশি বেশি করে আমার অগ্রজ নাট্যব্যক্তিত্বদের ফোন করে তাঁদের কুশল জানছি।’ অভিনেতা শুভাশিস মুখোপাধ্যায়ের দিন কাটছে এভাবেই। বললেন, ‘শুধু যাঁদের আমি শ্রদ্ধা করি তাঁদের নয়, ফোন করে খবর নিচ্ছি আমার সহশিল্পী ও সহযোদ্ধাদেরও।’ তিনি সারা দিনের বাকিটা সময় কীভাবে কাটাচ্ছেন? ‘আমার খুব প্রিয় ও জরুরি কাজটা এই ফাঁকে করে নিচ্ছি। ঘুমোচ্ছি। ঘুম থেকে উঠে নিউজ চ্যানেল দেখছি। আবার ঘুমোচ্ছি। এমনিতেও নিউজ চ্যানেলই দেখি। কিন্তু এখন কোনও নিউজ দেখতে গেলেই আতঙ্ক গ্রাস করছে। তাই আবার ঘুমিয়ে পড়ি।’‌ তবে রোজ সন্ধেবেলায় নিয়ম করে পড়াশোনাও করছেন। কাজের সঙ্গে সম্পর্কিত বইগুলো, চিত্রনাট্য। আর শুনছেন প্রিয় গান। বললেন, ‘রেডিওর সানডে সাসপেন্স থেকে সত্যজিৎ রায়ের বিভিন্ন গল্পের ওপর তৈরি বেশ কিছু স্ক্রিপ্ট দিয়ে গেছেন একজন। নেড়েচেড়ে দেখছি। একটি ছবির কাজও এসেছে। রাজীব নামে একটি ছেলে পরিচালনা করছেন। সেই ছবির শুটিংয়ে এখন উত্তরবঙ্গে থাকার কথা ছিল। স্থগিত সেই ছবি। পরিচালক পরে যোগাযোগ করবেন। আপাতত নাটক নিয়ে কোনও কাজ করছি না। আমাদের দলের একটা নাটক চালু আছে। আপাতত নতুন নাটক তৈরির পরিকল্পনা নেই।‌’‌‌

জনপ্রিয়

Back To Top