আজকালের প্রতিবেদন-তিনটি স্টুডিও। সিরিয়াল ও সিনেমার অগণিত অভিনেতা–অভিনেত্রী ও কলাকুশলী। মাঝেরহাট ব্রিজ ভেঙে পড়ার পর আতঙ্কিত তাঁরা। কারণ, মাঝেরহাট দিয়েই ব্রেসব্রিজের নারায়ণী স্টুডিও, চিত্রায়ণ স্টুডিও এবং ভিলাইন স্টুডিওতে যেতে হয় তাঁদের। মাঝেরহাট ব্রিজ পেরিয়ে জোকার নারায়ণী স্টুডিওয় শুটিং চলছে জনপ্রিয় গেম শো ‘‌দিদি নম্বর ওয়ান’‌, ‘‌শুভদৃষ্টি’ এবং ‘‌মুখোশের আড়াল’‌-‌এর। কাছাকাছি চিত্রায়ণ স্টুডিওয় শুটিং চলছে ‘‌বাবা লোকনাথ’‌ এবং ‘‌মহাপ্রভূ শ্রীচৈতন্য’‌র। আর তারাতলার ‘‌ভিলাইন’‌ স্টুডিওয় শুটিং চলছে ‘‌বকুলকথা’‌র। ব্রিজ ভাঙার পর সমস্যায় পড়েছিলেন এই ধারাবাহিকগুলির অভিনেতা–অভিনেত্রীরা। শুটিং শুরু হতে অনেক দেরি হয়ে গিয়েছিল। বুধবার বৃহস্পতিবারের খবর, এদিনও একটু দেরিতেই শুটিং শুরু হয়েছে। বুধবার নতুন রাস্তা দিয়ে স্টুডিওয় পৌঁছতে দেরি হয়েছিল। এদিন অতটা হয়নি। তবে শুটিংয়ের ফাঁকে অভিনেতা-‌অভিনেত্রীদের আলোচনায় ফিরে আসছে ওই ঘটনা। নারায়ণী স্টুডিওতে শুটিংয়ের ফাঁকে রচনা ব্যানার্জি (পাশের ছবিতে) বললেন, ‘‌সাধারণত বর্ধমান ব্রিজ হয়েই যাতায়াত করি। তবে মাঝে মাঝে তো মাঝেরহাট ব্রিজও ধরতে হত। দুর্ঘটনার পর থেকে আতঙ্কের মধ্যে আছি। এদিন খুব অসুবিধে হয়নি। ঠিক সময়েই পৌছে গিয়েছিলাম। তবে যাঁরা বাসে যাতায়াত করেন, তাঁদের একটু দেরি আমরা মেনে নিয়েছি।’‌ আবার ‘‌শুভদৃষ্টি’‌ ধারাবাহিকের অভিনেতা গৌরব রায়চৌধুরীর কথায়, ‘‌এখনও আতঙ্ক যাচ্ছে না।’‌ মহেশতলার বাসিন্দা গৌরব ওই ব্রিজ পেরিয়েই শুটিং–শেষে যান জিমে। বললেন, ‘‌মঙ্গলবার একটু তাড়াতাড়িই প্যাক আপ হয়ে গিয়েছিল। তাই একটু আগে পৌঁছই জিমে। শিডিউল টাইমে শুটিং শেষ হলে কী হত, ভাবতে হাত-‌পা ঠান্ডা হয়ে আসছে।’‌ ‘‌ভিলাইন’‌ স্টুডিওতে চলছে ‌‘বকুলকথা’‌র শুটিং। প্রযোজনা সংস্থা ‘‌অ্যাক্রপলিস’‌-‌এর অর্ণব রায় বললেন, ‘‌যাতায়াতে অসুবিধে তো হচ্ছেই। রাত ১০টার পর শুটিং করা যাবে না। তাই একটু আগেই কলটাইম দিয়ে রাখছি। এতে কেউ আপত্তি করছেন না। তবে দক্ষিণ ২৪ পরগনা থেকে আসা কলাকুশলীদের বেশি অসুবিধা হচ্ছে।’‌ 
 

জনপ্রিয়

Back To Top