আজকাল ওয়েবডেস্ক: একটি সর্বভারতীয় বিনোদনমূলক টিভি চ্যানেলের হুজুগে প্রচারে বিভ্রান্ত জনতা। আর পুলিশ কন্ট্রোল রুমে তাঁদের লাগাতার ফোনের ঠেলায় ঘুম উড়ল মহারাষ্ট্র পুলিশের। ঘটনাটি সোনি টিভির অনলাইন প্ল্যাটফর্ম সোনিলিভ সংক্রান্ত।
শুক্রবার থেকে ‘‌আনদেখি’‌ নামে একটি নতুন শো শুরু হয়েছে সোনিলিভে। দর্শককে আকৃষ্ট করতে সেই শো–এর প্রচারে এক অভিনব পন্থা নিয়েছিল তারা। শুক্রবার বিকেল থেকে মুম্বই পুলিশের প্রধান কন্ট্রোল রুমে লাগাতার সাধারণ মানুষের ফোন আসতে থাকে। প্রতিটি ফোনেই অভিযোগ, তাঁরা কেউ ১৪০ বা কেউ ৪০ সংখ্যা দিয়ে শুরু দুটি নম্বর থেকে ফোন পেয়েছেন। ফোনে ঋষি নামের কোনও যুবক তাঁদের কাছে সাহায্য চাইছেন এই বলে যে, তিনি আচমকা একটি খুন হতে দেখে ফেলেন এবং সেটি নিজের মোবাইলে তুলে ফেলেন। সেকারণে সেই হত্যাকারী এখন ঋষিকে খুন করতে চাইছে। অনেকে আবার ঋষিকে সাহায্য করতে বলে মুম্বই পুলিশকে পরামর্শও দিয়েছেন।
বিকেল থেকে কন্ট্রোল রুমে টানা একই ধরনের ফোন পেয়ে অবশেষে তদন্তে নেমে পুলিশ জানতে পারে ঋষি নামক যুবকের ফোনটি আসনে সোনিলিভের নতুন অনলাইন শো ‘‌আনদেখি’‌–র প্রচার। সমস্যা বাড়তে থাকায় শুক্রবার রাতেই মহারাষ্ট্র পুলিশের সাইবার শাখা সোনিলিভ–কে অবিলম্বে ওই প্রচার বন্ধ করতে নির্দেশ দেয়। সাধারণ মানুষকেও আবেদন করে যে তারা যেন কোনওরকন গুজবে না বিশ্বাস করেন। মুম্বই পুলিশ তাদের টুইটার অ্যাকাউন্টে আবেদন করে যে তাঁরা যেন এভাবে বিভ্রান্ত না হয়ে স্থানীয় থানায় যোগাযোগ করেন। পুলিশের নির্দেশ পেয়ে ওই রাতেই সোনিলিভের তরফে টুইটার পোস্টে ক্ষমাপ্রার্থনা করে লেখা হয়, ওটা তাদের নতুন শো–এর পরীক্ষামূলক প্রচার ছিল। যেটা দুর্ঘটনাবশত বাইরে বেরিয়ে গিয়েছে। এজন্য মানুষের যে অসুবিধা হয়েছে তাতে তারা ক্ষমাপ্রার্থী।   
‌‌

জনপ্রিয়

Back To Top