আজকালের প্রতিবেদন: ‘যখন শুটিং বন্ধ হল, অনুষ্ঠানও বন্ধ হয়ে গেল, তখন, অস্বীকার করব না, প্রথমটা বেশ ভালই লাগছিল। কিন্তু লকডাউনের পর এখন ক্রমশ বিরক্ত লাগছে।’ বললেন অভিনেতা ও সঙ্গীতশিল্পী সাহেব চট্টোপাধ্যায়। বললেন, ‘অথচ এই করোনা ভাইরাস মানব সভ্যতাকে যে চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে দিয়েছে, তার বিরুদ্ধে জয়ী হতে গেলে যে, এখন ঘরবন্দি থাকতেই হবে, সেটাও তো অস্বীকার করতে পারি না। তাই মন দিয়েই লকডাউন পালন করছি।’ কয়েকদিন আগেই ফেসবুকে তিনি জানিয়েছেন লকডাউন নিয়ে তঁার বিস্তারিত ভাবনা। জানিয়েছেন কীভাবে ছড়ায় এই প্রাণঘাতী ভাইরাস। ফেসবুকের মাধ্যমেই মানুষকে সচেতন করার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন তিনি। বলছেন, ‘যতই খারাপ লাগুক বা বিরক্তি আসুক, সবাই লকডাউন মানুন।’
তিনি গেয়ে চলেছেন একের পর এক গান, তঁার ভক্তদের জন্য, ফেসবুকে। বললেন, ‘মানুষকে যদি কিছুক্ষণের জন্যও ঘরবন্দি করতে পারি, তাতেই সমাজের মঙ্গল।’ তার সঙ্গে আছে নিজের জন্য নিজের পছন্দের গানও। সাধারণত রবীন্দ্রসঙ্গীতই তঁার প্রথম পছন্দ। তার পরেই আছে তঁার গাওয়া সিনেমার গান। কয়েকদিন আগেই রেকর্ড করেছেন ‘হৃদপিণ্ড’ ছবির গান। বারবার শুনছেন সেই গানগুলো। আছে বইপড়া এবং সিনেমা দেখা। সদ্য পড়তে শুরু করেছেন এ পি জে আবদুল কালামের ‘‌ইগনাইটেড মাইন্ডস’। বললেন, ‘এই বিচ্ছিরি সময়েও আমাকে অনুপ্রেরণা যোগাচ্ছেন প্রফেসর কালাম।’‌‌

জনপ্রিয়

Back To Top