সৌগত চক্রবর্তী: ‌টালিগঞ্জের ছবিতে এখন গোয়েন্দাদের ছড়াছড়ি। ফেলুদা, ব্যোমকেশ, কিরীটি, কাকাবাবু তো আছেনই। সঙ্গে সঙ্গে উঠে এসেছেন এমন কিছু গোয়েন্দা যাঁদের সাহিত্যে দেখা পাওয়া যায় না। এঁদের সৃষ্টি হয়েছে শুধু সিনেমার চিত্রনাট্যে। কয়েকবছর আগে ‘‌ষড়রিপু’‌ সিনেমায় আবির্ভূত হয়েছিলেন গোয়েন্দা চন্দ্রকান্ত। এই চরিত্রে অভিনয় করেছিলেন চিরঞ্জিত। এছাড়াও ইতিহাসের রহস্য সন্ধান করতে হাজির হয়েছেন ‘‌সোনাদা’‌। এই চরিত্রে অভিনয় করেছেন আবির চট্টোপাধ্যায়। এছাড়াও তাঁর নতুন ছবিতে পরিচালক প্রতিম ডি গুপ্ত এনেছেন এক নতুন গোয়েন্দা শান্তিলালকে। এই গোয়েন্দার ভূমিকায় অভিনয় করেছেন ঋত্বিক চক্রবর্তী। 
এবার মৈনাক ভৌমিকের পরিচালনায় আসতে চলেছে আরও এক গোয়েন্দা। যার নাম বিক্রম। তবে এই গোয়েন্দা পেশাদার গোয়েন্দা নয়। নেহাৎ-‌ই কৌতুহলের তাগিদে তার রহস্যে জড়িয়ে পড়া এবং রহস্য ভেদ করা। এই গোয়েন্দার বয়সও খুব কম। তাই মৈনাকের এই ছবির নাম ‘‌গোয়েন্দা জুনিয়র’‌। এই চরিত্রে অভিনয় করবেন শান্তিলাল মুখোপাধ্যায়ের ছেলে ঋতব্রত মুখোপাধ্যায়।
কিছুদিন আগেই মৈনাকের পরিচালনায় মুক্তি পেয়েছিল ‘‌জিনারেশন আমি’‌। সম্পর্কের গল্প বলেছেন এই ছবিতে পরিচালক। যেমন তাঁর অধিকাংশ ছবিতেই বলেন। কিন্তু এই বছর মৈনাক ভৌমিক একটু অন্যপথে হাঁটছেন। আগামী ২৬ জুলাই মুক্তি পাবে তাঁর নতুন ছবি ‘‌বর্ণ পরিচয়’‌। থ্রিলার ধর্মী এই ছবিতে অভিনয় করেছেন আবির চট্টোপাধ্যায় ও যিশু সেনগুপ্ত। আর এবার সরাসরি সৃষ্টি করলেন এক গোয়ান্দা চরিত্র যার নাম বিক্রম। মৈনাক অবশ্য বলেছেন, এই ছবিতে রহস্য সমাধান তো আছেই। তার সঙ্গে আছে এই গোয়েন্দা চরিত্রটির জীবন, তার বেড়ে ওঠা, তার জীবনের সম্পর্কগুলো কেমন সবই। এটা আসলে এক গোয়েন্দার গল্প সঙ্গে সঙ্গে তার বেড়ে ওঠারও গল্প।
কেমন এই বিক্রম?‌ জানা গেল এই বিক্রম পড়ে ক্লাস টেনে। তার এক বান্ধবীও আছে। আছে জেঠু জেঠিমা। ঘটনাচক্রে তার একটা রহস্যে জড়িয়ে পড়া। গল্পে আছে একজন পুলিশ অফিসারও। এই প্রথম কোনও গোয়েন্দা ছবি পরিচালনা করবেন মৈনাক ভৌমিক। জানালেন, অনেকদিন ধরেই ইচ্ছা ছিল ছোটদের জন্যে একটা গোয়েন্দা ছবি পরিচালনা করব। প্রথমে গল্প হিসাবে ‘‌পাণ্ডব গোয়েন্দা’‌কেই বেছে নিয়েছিলাম। কিন্তু আমি ঠিক যা চাই তা কিছুতেই পাচ্ছিলাম না। তাই নিজেই লিখে ফেললাম গল্প।
কিন্তু কেন গোয়েন্দার ভূমিকায় ঋতব্রত?‌ আসলে এই গল্প লিখতে লিখতেই এই মুখ্য চরিত্রের যে স্কেচটা মনের মধ্যে ভেসে উঠেছিল তার সঙ্গে ঋতব্রতর মুখের অদ্ভুত মিল। আর তাছাড়া ঋতব্রত আমার পছন্দের অভিনেতাও বটে। আমার ‘‌জেনারেশন আমি’তে ও লিড রোলে অভিনয় করেছে—বললেন মৈনাক। শুধু ‘‌জোনারেশন আমি’‌ নয়, ঋতব্রত অভিনয় করে ফেলেছেন ‘‌কাহানি’‌, ‘‌ওপেন টি বায়োস্কোপ’‌‌, ‘‌কিশোরকুমার জুনিয়র’, ‘‌পর্ণমোচী’ ইত্যাদি ছবিতে। প্রসেনজিতের সঙ্গে ‘‌কিশোর‌‌কুমার জুনিয়র’‌ ছবিতে দর্শকদের প্রশংসাও আদায় করে নিয়েছেন। এবার তাঁর ‘‌গোয়েন্দা জুনিয়র’‌ হওয়ার পালা। নতুন গোয়েন্দার ভূমিকায় অভিনয় করার সুযোগ পেয়ে ঋতব্রতও বেশ খুশি। এই প্রথম কোনও ছবির নাম ভূমিকায় অভিনয় করছেন। তবে একটা চ্যালেঞ্জও তাঁর সামনে ছুঁড়ে দিয়েছে এই ছবি। এখনও পর্যন্ত ছোট্ট গোয়েন্দাদের নিয়ে যেসব ছবি তৈরি হয়েছে ‘‌গোগোল’‌ বা ‘‌গোয়েন্দা তাতার’ তার কোনওটিই সেভাবে জনপ্রিয়তা পায়নি। এখন দেখার মৈনাক ও ঋতব্রতর জুটি কি পারবেন সেই জনপ্রিয়তা এনে দিতে?‌ এই ছবির শুটিং শুরু হবে এই মাসের শেষদিকে।‌

ছবি:‌ সুপ্রিয় নাগ

জনপ্রিয়

Back To Top