আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ বিবাহিত। ঘরে এক সন্তান। তার পরেও পরকীয়ায় জড়িয়ে পড়েছিলেন মহেশ ভাট। এই বিষয়টিই নাকি মেনে নিতে পারেননি মেয়ে পূজা। সেজন্য দূরে সরে গেছিলেন বাবার থেকে।‌ এসব কথা নিজেই জানিয়েছিলেন পূজা ভাট। অতীতের কিছু সাক্ষাৎকারে। সেই সাক্ষাৎকারই এখন ভাইরাল। 
পূজা অকপটে জানিয়েছেন, বাবার পরকীয়া সম্পর্কটা মোটেও মেনে নিতে পারেননি। সেজন্য দূরত্ব বেড়ে গেছিল। শুধু বাবার সঙ্গে নয়, সোনি রাজদানের সঙ্গেও। সে সময় এতটাই খারাপ সম্পর্ক হয়েছিল সোনির সঙ্গে, যে মুখ দেখাদেখিও বন্ধ হয়ে যায় দু’‌জনের। 
পূজার কথায়, তাঁর বাবার বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্কের কথা তিনিই প্রথমে জানতে পারেন। বাবা যখন ফোন করে সোনি রাজদানের কথা জানান তাঁকে, সেই সময় শুধু শুনেছিলেন তিনি। কোনও কথা বলতে পারেননি। তবে মনে প্রশ্ন উঠেছিল, তাঁর মা কিরণ ভাটের সঙ্গে বৈবাহিক সম্পর্ক থাকা সত্ত্বেও তিনি কীভাবে সোনি রাজদানের সঙ্গে সম্পর্কে জড়াতে পারেন?‌ 
বিষয়টিকে প্রথমে মেনে নিতে পারেননি পূজা। পরে ক্রমশ সোনি রাজদানের সঙ্গে তাঁর সম্পর্ক মসৃণ হতে থাকে। এমনকী তাঁর দুই মেয়ে শাহিন আর আলিয়ার সঙ্গে তাঁর সম্পর্কও এখন বেশ ভালো। আলিয়ার ছবির প্রিমিয়ারে দেখা গেছে পূজাকে। শাহিনের বই প্রকাশ অনুষ্ঠানেও ছিলেন তিনি। তবে এই রাস্তাটা অতটাও সহজ ছিল না, সেকথাও জানিয়েছেন পূজা। 
 

ছবি:‌ ইনস্টাগ্রাম থেকে

জনপ্রিয়

Back To Top