সঙ্কর্ষণ বন্দ্যোপাধ্যায়: ‌• ‘‌ডান্স দিওয়ানে সিজন ২’ শুরু হচ্ছে। এবারের চমক কী?‌
•• রিয়্যালিটি শো-‌তে আমরা একটা নির্দিষ্ট বয়সের প্রতিযোগীদের দেখে অভ্যস্ত। ডান্স দিওয়ানে কিন্তু আর পাঁচ থেকে পঁয়ত্রিশ বছরে আটকে থাকছে না। যদি প্রতিভা থাকে তবে বয়সটা কোনও ফ্যাক্টর নয়। এখানে তিন প্রজন্মের প্রতিযোগীরাই হাজির। ৪০, ৫০, ৬০ বছরের মানুষও এই প্রতিযোগিতায় পারপরম্যান্স করছেন। আমি তাঁদের পারপরম্যান্স দেখে অবাক হয়েছি। এবার প্রতিযোগীর সংখ্যা অনেক বেশি।
• একজন নৃত্যশিল্পী হিসেবে পারফর্ম করা নাকি নাচের বিচার করা—কোনটা বেশি শক্ত?‌
•• একজন নৃত্যশিল্পী হিসেবে আমি যখন পারফর্ম করি তখন সবসময় নিজের সেরাটা দেওয়ার চেষ্টা করি। আবার বিচারকের আসনে বসলে কাঁধে অনেক দায়িত্ব থাকে। সবসময়ে একটা ভয় থাকে সঠিক সিদ্ধান্ত নিলাম তো?‌ ফলে বিচার করাটা অনেক বেশি কঠিন। বিচারক হিসেবে প্রতিযোগীদের মধ্যে থেকে ইতিবাচক দিকগুলো খুঁজে বের করে তাদের দুর্বলতাগুলোকে কাটিয়ে দিতে চেষ্টা করব।
• এই ধরণের রিয়্যালিটি শো যতদিন চলে ততদিনই প্রতিযোগীদের প্রচারের আলোয় দেখা যায়। তারপরেই তাঁরা হারিয়ে যান। কেন?‌
•• হয়তো এঁরা প্রচারের আলোয় থাকেন না কিন্তু বিভিন্ন জায়গায় পারফর্ম করার মতো প্ল্যাটফর্ম পেয়ে যান। কাজের অভাব হয় না। কেউ কোরিওগ্রাফার, কেউ নৃত্যশিল্পী হিসেবে কাজে যুক্ত হয়েছেন। আজকাল তো বিয়ে উপলক্ষে দুই তিনদিন ধরে সঙ্গীত ও নাচের অনুষ্ঠান চলে। সেই জন্য কাজের সুযোগও অনেক বেশি রয়েছে এখন।
• এই ধরণের রিয়্যালিটি শো থেকে ছোটদের কোনও উপকার হয়?‌
•• সব থেকে বড় ব্যাপার এমন একটা মঞ্চে আসার সুযোগ পাওয়ার অর্থ হল অনেক কিছু শেখার সুযোগ। প্রথমত এতে প্রাথমিক জড়তা আর ভয়টা কেটে যায়। উৎসাহ পায়। নিজেদের ভুলত্রুটিগুলো শুধরে নিতে পারে।
• এই জাতীয় রিয়্যালিটি শোয়ে কি ধ্রুপদী নাচের প্রচার কম হচ্ছে?‌
•• ডান্স দিওয়ানের প্রথম সিজন যদি দেখে থাকেন তাহলে নিশ্চয়ই জানেন সেখানে অনেক প্রতিযোগী ধ্রুপদী নাচে অংশ নিয়েছিলেন। ভরতনাট্যম, কথাকলি, শিব তাণ্ডব সবরকম নৃত্যশৈলীই দেখা গেছে। এবারেও অনেক প্রতিযোগী ধ্রুপদী নাচে অংশ নেবেন।
• এই সময়ের নাচে কি স্টান্ট অ্যাকশনের পরিমাণ বেড়ে গেছে?‌
•• নাচ হল একটা অনুভূতির বহিঃপ্রকাশ। প্রযুক্তির কল্যাণে এখন পৃথিবীটা ক্রমশ ছোট হয়ে যাচ্ছে। কনটেম্পোরারি, হিপহপ, সালসা বিভিন্ন ধরণের নৃত্যশৈলী দেখার সুযোগ হচ্ছে। তার সঙ্গে পরিচিত হওয়ার সুযোগ মিলছে। এটা ছোটদের পক্ষে খুবই ভাল। আমার তো মনে হয় সব ধরণের নাচই শেখা উচিত। তবে শিকড়টা যেন ধ্রুপদী নৃত্যের হয়।
• ডান্স দিওয়ানের অপর দুই বিচারক শশাঙ্ক খৈতান ও তুষার কালিয়ার সঙ্গে কাজের অভিজ্ঞতা কেমন?‌
•• শশাঙ্ক এবং তুষার—দুজনেই খুব ট্যালেন্টেড। তুষার তো নাচের রিয়্যেলিটি শো থেকে উঠে আসা। এখন বলিউডের অন্যতম কোরিওগ্রাফার। আর শশাঙ্ক এই সময়ের অন্যতম পরিচালক ও চিত্রনাট্যকার। তাঁর পরিচালিত ধড়ক, বদ্রীনাথ কি দুলহনিয়া দর্শকের ভাল লেগেছে। ও কিন্তু কলকাতারই মানুষ। নাচের সেন্সটা খুব ভাল। আমাদের তিনজনের মধ্যে খুব তালমিল। আমরা তিনজনে একমত হয়ে তবেই কোনও ডিসিশন নিই।
• আপনার কাছে কোনটা প্রিয়—অভিনয় না নাচ?‌
•• দুটোই। আমার নাচ আমার প্যাশন আর অভিনয়টা আমার ভালবাসা।
• এই বছর আপনার ‘‌টোটাল ধামাল’‌ আর ‘‌কলঙ্ক’‌ রিলিজ করেছে। অভিজ্ঞতা কেমন?‌
•• খুবই ভাল অভিজ্ঞতা। দুটো ছবি একদম আলাদা। আলাদা চরিত্র। কলঙ্ক-‌এর বাহার বেগমের চরিত্রটা একদম সাধারণ এক মহিলার। আবার টোটাল ধামাল-‌এর বিন্দু এক লোভী মহিলার চরিত্র। দুটো ছবিতেই কাজ করে আনন্দ পেয়েছি।
• অনেকদিন পরে অনিল কাপুরের সঙ্গে অভিনয় করলেন।
•• বিশ্বাস করুন, এক মূহূর্তের জন্যেও মনে হয়নি এতবছর পর আবার আমরা একসঙ্গে কাজ করলাম। প্রথম শট থেকে মনে হয়েছে আমরা দুজনেই যেন নিয়মিত কাজের মধ্যে রয়েছি।
• এখন যে সমস্ত নায়িকা কাজ করছেন তাঁদের মধ্যে যদি একজনকে বেছে নিতে বলা হয়?‌
•• আমি কাউকে কখনও নম্বর দিইনা। নিজেকেও কোনওদিন নম্বর দিইনা। কারণ প্রত্যেকেরই আলাদা আলাদা পারসোনালিটি। এভাবে কাউকে বিচার করা যায় না। 
• এমন কোনও নায়িকা এখন আছেন যিনি নিজের কাঁধে একটা ছবি টেনে নিয়ে যেতে পারেন?‌
•• সিনেমা সবসময় একটা দলগত প্রচেষ্টা। একার পক্ষে কোনওকিছু করা সম্ভব নয়। কাহিনি, চিত্রনাট্য, পরিচালনা, অভিনয় সব কিছু ঠিক থাকলে তবেই একটা ছবি হিট হয়।
• এমন কোনও চরিত্র যেখানে এখনও অভিনয় করা হয়নি?‌
•• এমন তো অনেক চরিত্রই আছে। আশা করি কোনওদিন সুযোগ হবে সেই স্বপ্নগুলো পূরণ হওয়ার।
• আজকাল তো অনেক নায়িকাই রাজনীতিতে আসছেন। আপনি কবে আসবেন?‌
•• না, না। আমার একেবারেই রাজনীতি করার ইচ্ছে নেই।
• আপনার স্বামী ডক্টর নেনে নাচের কতখানি অনুরাগী?‌
•• আমার স্বামী পেশায় ডাক্তার হলেও সবসময় শিল্প ও সাহিত্যের অনুরাগী। নাচ, গান, বা ছবির প্রতি ওর একটা আলাদা অনুরাগ আছে।
• দুই ছেলে অরিণ ও রাইয়ানের নাচের প্রতি আগ্রহ আছে?‌
•• দুজনেই দেখতে দেখতে বেশ বড় হয়ে গেল। বড়জন পড়ে ক্লাস টেন-‌এ, আর ছেটজন পড়ে ক্লাস এইট-‌এ। অরিণের নাচের প্রতি একটা আগ্রহ লক্ষ্য করা যাচ্ছে। কিন্তু রাইয়ানের আবার বিজ্ঞানের দিকে ঝোঁক।
• আপনার এত ফিট থাকার গোপন মন্ত্র?‌
•• অবশ্যই নাচ। নাচ আমার কাছে ঈশ্বর সাধনার মতো। এখনও নিয়ম করে কত্থক চর্চা করি। নাচ শরীর ফিট রাখতে খুব সাহায্য করে। এছাড়াও ফ্রিহ্যান্ড এক্সারসাইজ করি। সারাদিনে নিয়ম করে ১৫ মিনিট মেডিটেশন করি।
• শোনা যাচ্ছে আপনার বায়োপিক তৈরি হচ্ছে?‌
•• এটা একেবারেই গুজব।
• পরের ছবির কাজ?‌
•• এই বছর পরপর দুটো ছবি করলাম। এখন ডান্স দিওয়ানে নিয়ে ব্যস্ত। অনেক চিত্রনাট্য আমার কাছে আসছে। পছন্দ হলে নিশ্চয়ই করব।
• বাংলা ছবিতে কাজের ইচ্ছা আছে?‌
•• ইচ্ছে তো আছে। এমন কি ঋতুদার (‌ঋতুপর্ণ ঘোষ)‌ সঙ্গে কথাও হয়েছিল। ওঁর চলে যাওয়াটা খুব দুঃখজনক। ভাল চিত্রনাট্য পেলে বাংলা ছবি করতে আপত্তি নেই। অপর্ণা সেনের ছবিতে কাজ করার আগ্রহ রয়েছে। ‌‌

ছবি:‌ সঙ্কর্ষণ বন্দ্যোপাধ্যায়
 

জনপ্রিয়

Back To Top