অদিতি রায়: ‌তখ্‌ত
অর্থাৎ সিংহাসন। বলিউডের সিংহাসনে অধিষ্ঠিত করণ জোহরের স্বপ্নের প্রজেক্ট। শাহজাহানের দুই পুত্র দারা সুকো ও ঔরঙ্গজেবের ক্ষমতার লড়াইয়ের গল্প ইতিহাসের পাতা থেকে এবার সোজা রুপোলি পর্দায়। শাহজাহানের বড় সন্তান দারা সুকো ছিলেন কবি স্বভাবের। শিল্পকলায় ছিল তাঁর অনুরাগ। অন্যদিকে ক্ষমতার লোভে বৃদ্ধ বাবা বা দাদাকেও ছেড়ে কথা বলতে রাজি ছিলেননা ঔরঙ্গজেব। রাজনীতির এই প্রাণঘাতী উপাখ্যানের সিনেম্যাটিক রূপান্তরের কথক স্বয়ং করণ জোহর। অনিল কাপুর রয়েছেন শাহজাহানের ভূমিকায়। এই প্রথম করণ জোহরের ছবিতে দেখা যাবে অনিল কাপুরকে। রণবীর সিং এবং ভিকি কৌশল দারা সুকো এবং ঔরঙ্গজেবের চরিত্রে। করিনা কাপুরকে শাহজাহানের কন্যা জাহানারা বেগম এবং আলিয়া ভাটকে দারা সুকোর স্ত্রী বেগম নাদিরা বানুর ভূমিকায় দেখা যাবে। ভূমি পেড়নেকরকে ঔরঙ্গজেবের স্ত্রী দিলরস বানু বেগম ও জাহ্নবী কাপুরকে দেখা যাবে এক দাসকন্যার চরিত্রে। করণ বলছেন এই ছবি যেন মুঘল যুগের ‘কভি খুশি কভি গম‌’‌!‌ ২০২০-‌তে মুক্তি পাবে ‘‌তখ্‌ত’‌।
তানাজি-‌ দ্য আনসাং ওয়রিয়র
মারাঠি যোদ্ধা, ছত্রপতি শিবাজির ‘মহারাজ‌’‌ রেজিমেন্টের কমান্ডার তানাজি এবার রুপোলি পর্দায়। ভূষণ কুমার এবং অজয় দেবগণের যৌথ প্রযোজনায়, ওম রাউত পরিচালিত ‘তানাজি-‌ দ্য আনসাং ওয়ারিয়র‌’-‌এ‌র শুটিং শুরু হবে ২৫ সেপ্টেম্বর থেকে। এই ছবিতে রাজপুত অফিসার উদয়ভান রাঠোরের চরিত্রে থাকছেন সৈফ আলি খান। বলাই বাহুল্য সুবেদার তানাজির ভূমিকায় দেখা যাবে অজয় দেবগণকে। ‘‌ওমকারা’‌র পর আবার অজয় দেবগণকে নায়ক এবং সৈফ আলি খানকে ভিলেনের ভূমিকায় পর্দায় একসঙ্গে দেখবেন দর্শকরা। ইতিমধ্যেই ঢাল-‌তলোয়ার নিয়ে ময়দানে নেমে পড়েছেন অজয়। শুটিং শুরুর আগে তলোয়ার চালনায় নিপূণ হয়ে ওঠাই তাঁর প্রধান লক্ষ্য। চমক আরও আছে, তানাজির স্ত্রীর চরিত্রে কাজল থাকতে পারেন বলে জানা যাচ্ছে। বাস্তবের স্বামী-‌স্ত্রী জুটিকে অনেকদিন পর পর্দায় দেখার জন্য যে ভক্তরা অপেক্ষা করবেন সেটা আর বলার অপেক্ষা রাখেনা!‌
পানিপথ
‘যোধা আকবর‌’‌-‌এর পর এবার আশুতোষ গোয়ারিকরের বিষয় তৃতীয় পানিপথের যুদ্ধ। বিপুল অর্থব্যয় করে মুম্বইয়ের স্টুডিওতে একই অবয়ব ও বিশালত্ব নিয়ে বানানো হয়েছে পেশোয়ার বিখ্যাত শনিওয়ার ওয়ারা।

জাতীয় পুরস্কারপ্রাপ্ত শিল্প নির্দেশক নীতিন চন্দ্রকান্ত দেশাই সামলাচ্ছেন এই দায়িত্ব। হিন্দি সাহিত্যের দিগগজ, কবি, প্রবন্ধকার পদ্মশ্রী চক্রধর অশোক দায়িত্ব নিয়েছেন ছবির সংলাপ রচনার। মারাঠা নেতা সদাশিব রাও ভাওয়ের চরিত্রে রয়েছেন অর্জুন কাপুর। আহমেদ শাহ দুরানির ভূমিকায় দেখা যাবে সঞ্জয় দত্তকে। রয়েছেন কৃতী স্যানোঁ। ছবির শুটিং শুরু হয়েছে সদ্য। ‘পানিপথ‌’‌ মুক্তি পাবে ২০১৯-‌এর ৬ ডিসেম্বর।
কলঙ্ক
১৯৪০-‌এর পটভূমিকায় ইতিহাসের পাতা থেকে উঠে আসা কিছু চরিত্র নিয়ে করণ জোহরের বাবা প্রয়াত পরিচালক প্রযোজক যশ জোহরের স্বপ্নের প্রজেক্ট ‘‌কলঙ্ক’‌। রীতিমতো প্রস্তুতি নিয়ে এই ছবিতে এবার সবুজ সিগন্যাল দিলেন করণ জোহর। যদিও এই ছবি তিনি নিজে পরিচালনা করছেন না। ‘টু স্টেট‌’‌ খ্যাত পরিচালক অভিষেক বর্মন পরিচালনা করবেন ‘‌কলঙ্ক’‌। দেশভাগের পটভূমিকায় গড়ে ওঠা এই ঐতিহাসিক প্রেমের উপাখ্যানে তারকাদের তালিকা রীতিমতো চমকপ্রদ। বরুণ ধাওয়ান, আলিয়া ভাট, সোনাক্ষী সিনহা, আদিত্য রয় কাপুর, কুণাল খেমু তো রয়েছেনই, তার ওপর আলিয়ার নৃত্য শিক্ষিকার ভূমিকায় মাধুরী দীক্ষিত এবং সঙ্গে সঞ্জয় দত্তের উপস্থিতি ইতিমধ্যেই চড়িয়েছে কৌতুহলের পারদ!‌ সেই কবে শেষ দেখা গিয়েছিল মাধুরী-‌সঞ্জয়কে একসঙ্গে। তারপর আর দেখা যায়নি এই রিয়েল লাইফ প্রাক্তন প্রেমীযুগলকে। কাজেই মাধুরী-‌সঞ্জয় যে এই ছবির তুরূপের তাস সেটা বলাই বাহুল্য। মশলা আরও আছে। করণের বাবা যশ জোহরের ইচ্ছে ছিল শ্রীদেবীকে নিয়ে ছবিটা বানানোর। সেইমতো শ্রীদেবীর সঙ্গে কথাও এগিয়েছিল করণ জোহরের। শ্রীদেবী সাগ্রহে রাজি হয়েছিলেন। কিন্তু শ্রীদেবীর অকাল প্রয়াণে করণ তাঁর প্রয়াত পিতার ইচ্ছাপূরণ করতে পারেননি। সেই চরিত্রে অবশেষে মাধুরীকে প্রস্তাব দেন করণ, শ্রীদেবীর সম্মানে এককথায় রাজি হয়ে যান মাধুরী। শ্রীদেবীর বড় মেয়ে জাহ্নবী খুশি হয়ে টুইটও করেন এই খবরে। তিনি লেখেন, ‘যে কাজ আমার মা করে যেতে পারেননি, সেই শূন্যস্থানে মাধুরীজির থেকে যোগ্য আর কেউ হতে পারেননা।‌’‌ ১৯৪০-‌এর লাহোরের সেট তৈরির জন্য পরিচালক ও প্রযোজক একপ্রস্থ পাকিস্তান ঘুরে এসেছেন বলেও শোনা যাচ্ছে। ২০১৯-‌এর ১৯ এপ্রিল মুক্তি পাবে ‘কলঙ্ক‌’‌। ‌‌

জনপ্রিয়

Back To Top