আজকালের প্রতিবেদন- সোমবার বিকেল সাড়ে চারটে। নন্দন চত্বরে ঢুকলেন মুনমুন সেন। সঙ্গে ২৫তম কলকাতা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবের চেয়ারপার্সন রাজ চক্রবর্তী। মুনমুন সেন খোঁজ নিলেন ‘‌সিনেটেল’‌–‌‌এর স্টল। সেখানে যাওয়ার কাজটা কিন্তু খুব একটা সহজ হল না। মূলত সেলফি শিকারিদের কারণে। নন্দন চত্বর তখন একটা জনঅরণ্য।
বিকেল পাঁচটা। সেই জনঅরণ্যে ঢুকলেন মন্ত্রী অরূপ বিশ্বাস ও ইন্দ্রনীল সেন। সোজা পৌঁছে গেলেন ‘‌একতারা’‌ মুক্ত মঞ্চে। সেখানে তখন চলছে পরমব্রতর সঞ্চালনায় আড্ডা ‘‌সেভেন্টি এম এম টু স্ক্রিন’‌। আসলে সিনেমার একটা বিবর্তনের ইতিহাস। সেই আড্ডায় অংশ নিলেন সৃজিত মুখোপাধ্যায়, বিরসা দাশগুপ্ত, গৌতম ঘোষ, পায়েল সরকার।
কলকাতা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবের আর একটা গুরুত্বপূর্ণ অংশ হল ‘‌সত্যজিৎ রায় মেমোরিয়াল লেকচার’‌। সোমবার শিশির মঞ্চে সেই বক্তৃতা দিলেন পরিচালক কুমার সাহানি। তাঁর সঙ্গে দর্শকদের পরিচয় করিয়ে দিলেন অভিনেতা ধৃতিমান চট্টোপাধ্যায়। কুমার সাহানির বক্তব্যের বিষয় ছিল ‘‌দ্য ফিউচার অফ দ্য ইন্ডিভিজুয়াল’‌। দর্শকপূর্ণ প্রেক্ষাগৃহে এই বক্তৃতা বেশ আকর্ষণ করে মানুষকে।
এদিন নন্দন ১–‌‌এ ‘‌মায়েস্ত্রো’ বিভাগে দেখানো হল বুদ্ধদেব দাশগুপ্তর ছবি ‘‌উড়োজাহাজ’‌। ছবি শুরুর আগে বুদ্ধদেব দাশগুপ্ত বললেন, ‘‌এই চলচ্চিত্র উৎসব যে রাজ চক্রবর্তীর মতো একজনকে পেয়েছে তা গর্বের ব্যাপার।’‌ তাঁর সঙ্গে তখন ছিলেন গৌতম ঘোষ। জানিয়ে দিলেন, ‘‌আমরা বড় পর্দায় বড় ছবি করতে শুরু করেছিলাম। আমাদের যদি কেউ ওয়েব সিরিজ করতে ডাকে তো আমরা তা করব না।’‌ বুদ্ধদেব দাশগুপ্তর ছবি ‘‌উড়োজাহাজ’ দেখার জন্য দর্শকদের মধ্যে বিশেষ আগ্রহ লক্ষ্য‌ করা যায়। প্রতিযোগিতা বিভাগ এশিয়ান সিলেক্টে এদিন রবীন্দ্র সদনে দেখানো হল অপরাজিতা ঘোষের ছবি ‘‌মিস্টিক মেমোয়ার’‌, আর বেঙ্গলি প্যানোরামায় দেখানো হল তুষার বল্লভের ‘‌বাকি ইতিহাস’‌।
গত বছর ছবি সংরক্ষণের ওয়ার্কশপ করতে কলকাতায় এসেছিলেন শিবেন্দ্র সিং দুঙ্গারপুর। এ বছরও তিনি এসেছেন এই কাজে। আর সোমবার চলচ্চিত্র শতবার্ষিকী ভবনে দেখানো হল তাঁর নেতৃত্বেই পুনরুদ্ধার করা সত্যজিৎ রায়ের ছবি ‘‌অপরাজিত’‌। এই উৎসবে এরকমই কিছু ক্লাসিক ছবি দেখানো হচ্ছে। রবীন্দ্র–‌ওকাকুরা ভবনে তারই অঙ্গ হিসেবে আজ দেখানো হল অরবিন্দ মুখোপাধ্যায়ের ‘‌অগ্নীশ্বর’‌ ও উমানাথ ভট্টাচার্যর ‘‌চারমুর্তি’‌। এছাড়াও এই উৎসবের তথ্যচিত্র বিভাগে দেখানো হল বাংলার দুর্গাপুজো নিয়ে ‘‌দুর্গা দলিল’‌। পাশাপাশি জমে উঠেছে বাংলাদেশের অ্যাকাডেমির সামনে সিনেমার বই নিয়ে বইমেলা। সোমবার সেখানে এল চলচ্চিত্র চর্চার গোদার সংখ্যা। এল নির্মল ধরের লেখা ‘‌ভিন দেশের সিনেমা’‌। এই বইয়ে আছে বিদেশি ১০১টি ছবি নিয়ে আলোচনা। বইয়ের প্রকাশক ‘‌সহজপাঠ’। দুটো বই–‌ই সিনেমাপ্রেমীদের মধ্যে আগ্রহ সৃষ্টি করেছে।
সোমবার সকাল থেকেই শিশির মঞ্চ, রবীন্দ্র সদন ও নন্দনে ফ্রি পাসের জন্য দীর্ঘ লাইন। যত সময় গেছে সেই ভিড় আরও বেড়েছে। ভিড় ছিল ফুড স্টলেও। সব মিলিয়ে ২৫তম কলকাতা চলচ্চিত্র উৎসবের চতুর্থ দিনেও নন্দন চত্বর ছিল সরগরম।‌ ‌

 

প্রবীণদের জন্য
স্নেহদিয়া–‌র প্রবীণ নাগরিকেরা যাতে চলচ্চিত্র উৎসব উপভোগ করতে পারেন, সেজন্য তঁাদের সিজন পাস দেওয়া হল। ছিলেন রাজ্যের দমকল মন্ত্রী সুজিত বসু, তথ্যপ্রযুক্তি ও ইলেকট্রনিক্স দপ্তরের অতিরিক্ত মুখ্য সচিব ও হিডকো–‌র চেয়ারম্যান দেবাশিস সেন এবং কলকাতা ইন্টারন্যাশনাল ফিল্ম ফেস্টিভ্যালের চেয়ারম্যান ও চিত্রপরিচালক রাজ চক্রবর্তী। দেবাশিস সেন জানিয়েছেন, নজরুলতীর্থে এই উৎসবের নানা সিনেমা প্রতি বছর দেখানো হয়। স্নেহদিয়া–‌র বাসিন্দাদের এই উৎসবের পাস দেওয়ার জন্য এ বছর তঁারা বিশেষ উদ্যোগ নিয়েছেন।   ‌‌

নন্দনে সিনেমা আড্ডা ও আলোচনাসভায় দুইমন্ত্রী অরূপ বিশ্বাস ও ইন্দ্রনীল সেন। ছবি: সুপ্রিয় নাগ

জনপ্রিয়

Back To Top