বিনোদনের প্রতিবেদন:‌ কমলেশ্বর মুখোপাধ্যায়ের পরিচালনায় ‘‌আমাজন অভিযান’ মুক্তি পেয়েছিল ২০১৭য়। মুখ্যচরিত্র শঙ্করের ভূমিকায় ছিলেন দেব। ২০১৭ থেকে ২০১৯। আবার এসভিএফ প্রযোজনা সংস্থায় প্রত্যাবর্তন দেবের। তাঁকে অভিনয় করতে দেখা যাবে পরিচালক ধ্রুব ব্যানার্জির ‘‌গুপ্তধন’‌ সিরিজের তৃতীয় ছবিতে। এর আগে বাংলা সিনেমায় পরিচালক ধ্রুব এনেছিলেন এক নতুন চরিত্রকে। তিনি হলেন ইতিহাসের অধ্যাপক ‘‌সোনাদা’। সেই চরিত্র নিয়েই ধ্রুবর প্রথম ছবি ছিল ‘‌গুপ্তধনের সন্ধানে’‌।
তবে এই সিরিজের এই নতুন ছবির নাম এখনও ঠিক হয়নি। তবে জানা গেছে এই ছবিতেও থাকবে চিরাচরিত ‘‌বাঙালিয়ানা’‌। থাকবে আমাদের ‘‌চেনা ইতিহাসের অচেনা দিক’‌। আর এই ছবিতে সেই চেনা ইতিহাসের অচেনা দিক হলেন ভারতীয় ফুটবলের জনক নগেন্দ্রপ্রসাদ সর্বাধিকারি। আর সেই চরিত্রে অভিনয় করবেন দেব। আগামী জানুয়ারিতেই শুরু হবে এই ছবির শুটিং।
প্রায় দু’‌বছর পরে পুরনো প্রযোজনা সংস্থার ছবিতে ফিরতে চলেছেন দেব। জানালেন, ‘‌এসভিএফের সঙ্গে কাজ করতে পারা সবসময়ই আনন্দের। ধ্রুবর পরিচালনা আর চিত্রনাট্যও বেশ সুন্দর। আমি ওর সঙ্গে কাজ করার সুযোগ পেয়ে খুবই খুশি।’‌ 
১৮৮৭ তে হেয়ার স্কুলে নগেন্দ্রপ্রসাদের ফুটবল জীবন শুরু। কয়েকজন সহপাঠীকে নিয়ে এই হেয়ার স্কুলের মাঠেই শুরু করেন ফুটবল প্র‌্যাকটিশ। তখন ভারতীয়দের মধ্যে এই খেলা অচেনাই ছিল। তাঁর ফুটবলখেলায় উৎসাহ দিতেন ইউরোপিয়ানরাও। পরে ‘‌দ্য বয়েজ ক্লাব’‌ নামে প্রথম ফুটবল ক্লাবের জন্ম দেন নগেন্দ্রপ্রসাদ সর্বাধিকারী।
পরিচালক ধ্রুব বন্দ্যোপাধ্যায় জানালেন, ‘‌বাংলার অচেনা ইতিহাসের মধ্যেই নগেন্দ্রপ্রসাদ সর্বাধীকারির মতো একজন মানুষ ছিলেন। তাঁর সম্পর্কে এখনও বাঙালি বিশেষ কিছু জানে না। তাই অনেকদিন ধরেই আমার স্বপ্ন ছিল এই মানুষটার কাহিনী দর্শকদের সামনে তুলে ধরা। এই যে হারিয়ে যাওয়া একটা অধ্যায়, কী অসাধারণ একটা বর্ণময় একটা চরিত্র সেটাকেই আমার ছবিতে তুলে ধরব।’‌ তবে এর পাশাপাশি ধ্রুব জানিয়েছেন, ‘‌এটা কিন্তু বায়োপিক নয়। নগেন্দ্রপ্রসাদ সর্বাধিকারিকে রেখে তাঁর সময়ের নানা ঘটনা নিয়ে এই ছবি।’‌
কিন্তু এই চরিত্রে দেব কেন?‌ ধ্রুব জানালেন, ‘‌আমার কাছে নগেন্দ্রপ্রসাদ সর্বাধিকারির একটা সাদা কালো ছবি আছে। সেটা দেখলে মনে হবে তা যেন দেবেরই ছবি। অনেকটাই একইরকম দেখতে দেব।’‌ জানুয়ারিতে উত্তর কলকাতা জুড়ে শুটিং শুরু হবে এই ছবির। 
ছবি: অলোকপ্রসাদ চট্টোপাধ্যায়
 

জনপ্রিয়

Back To Top