আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ সমকামিতা নিয়ে শীর্ষ আদালতের রায়টা টেলিভিশনের পর্যায় দেখার পর পরিচালক দীপা মেহতা হয়তো ভাবছেন, আজ আবার নতুন করে ‘‌ফায়ার’ মুক্তি পেলে মন্দ হত না। কারণ যে সময় সেটি মুক্তি পেয়েছিল, তখন ফায়ার নিয়ে রীতি মত আগুন জ্বলেছিল গোটা দেশে। সিলভার স্ক্রিনে দুই নারী সমপ্রেম মেনে নিতে অস্বীকার করেছিল তদানিন্তন ভারতীয় সমাজ। সংস্কৃতির ঢাল করে তাঁরা প্রবল আপত্তি তুলেছিলেন ফায়ার নিয়ে। সিনেমা হল ভাঙচুর থেকে শুরু করে পোস্টারে আগুন  ধরানো কম বাধা অতিক্রম করতে হয়নি একটি ছবি মুক্তির জন্য। তবু দীপা মেহতা বলেই হয়তো পেরেছিলেন সেই পরিস্থিতিতে লড়াইটা করতে। সিলভার স্ক্রিনে সাবানা আজমি আর নন্দিতা দাসের সমকামী যৌনতা দেখতে নারাজ ছিলেন সমাজপতিরা। 
তাই বলিউড আজ ভীষণ খুশি। ভীষণ খুশি করণ জোহর, উদয় চোপড়ারা। যাঁদের সম্পর্ক সকলের জানা।

কেবল মাত্র ৩৭৭ ধারার ভয়ে সেটি জনসমক্ষে আনতেন না তাঁরা। তাই শীর্ষ আদালতের রায় শোনার পরেই করণ টুইট করে জানান, ঐতিহাসিক রায়। শীর্ষ আদালতের রায়কে স্বাগত জানাই। সমপ্রেম এবং মানবিকতার জয় হল আজ। নতুন করে অক্সিজেন পেল দেশ। অভিনেতা অর্জুন কাপুর টুইট করে বলেছেন, শীর্ষ আদালতের এই সিদ্ধান্ত বলে দিচ্ছে দেশে এখনও কিছু সংবেদনশীল মানুষ রয়েছেন। অভিনেত্রী দিয়া মির্জা টুইটে লিখেছেন, এতদিনে সমানাধিকার পেল ভারতীয়রা। সম প্রেম। সমানাধিকার। 
অভিনেতা আয়ুষ্মান খুরানা আবার টুইটে লিখেছেন, ৩৭৭–এর জন্য দুঃখিত। উন্নতমনা ভারতে আজ নতুন সূর্যোদয় হল। সকলকে ভালবাসা জানাই। 
অভিনেত্রী স্বরা ভাস্কর, সমকামিতার আন্দোলনে যাঁরা সামিল হয়েছিলেন তাঁদের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন টুইটে। সমকামিদের অবাধ এবং স্বাধীনতা স্বীকৃতির সঙ্গে সঙ্গে দেশবাসী নতুন করে স্বাধীনতার স্বাদ পাবেন বলেই লিখেছেন তিনি।

 
সমকামিতা নিয়ে শীর্ষ আদালতের রায়কে স্বাগত জানিয়েছেন অভিষেক বচ্চনও। দোস্তানা ফিল্মে অভিষেক নিজে একজন সমকামীর চরিত্রে অভিনয় করেছিলেন। সেই ছবিতেই অভিষেকের পার্টনারের ভূমিকায় অভিনয় করেছিলেন জন আব্রাহাম। তিনিও টুইট করে শীর্ষ আদালতের ঐতিহাসিক রায়কে স্বাগত জানিয়েছেন। 
হুমা কুরেশি টুইটে লিখেছেন, শীর্ষ আদালতের সিদ্ধান্তে আমি গর্বিত। অভিনেত্রী ও পরিচালক কঙ্কনা সেনশর্মা টুইটে লিখেছেন আমাদের জয় হল। এখন এলজিবিটি কমিউনিটিও সাধারণ মানুষের মতই থাকতে পারবেন। শীর্ষ আদালতের এই রায়ই বলে দিচ্ছে সবসময় মেজরিটির সিদ্ধান্তই শেষ কথা নয়। ফারহান আখতার, প্রীতি জিন্টাও টুইট করে সমকামী আন্দোলনকারীদের জয়ের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন। রাজকমার রাও শীর্ষ আদালতের এই রায়কে ঐতিহাসিক বলে লিখেছেন টুইটে। অন্যদিকে সোনম কাপুর আহুজা টুইটে লিখেছেন, এজন্যই আমি ভারতকে এত ভালবাসী। এখানে এখন সবাই স্বাধীন ভাবে বাঁচতে পারবে। বরুণ ধবনও শীর্ষ আদালতের রায়কে স্বাগত জানিয়েছেন। 
‌‌

জনপ্রিয়

Back To Top