সৌগত চক্রবর্তী: অরণ্য রায়চৌধুরি ওরফে শিবমের বয়স মাত্র ৮। আদি নিবাস কৃষ্ণনগরে। সেখানকারই কৃষ্ণনগর এম টি এম সেন্ট্রাল মডেল স্কুলের ক্লাশ থ্রি-‌এর ছাত্র। এই বয়সেই অভিনয়ে সবাইকে তাক লাগিয়ে দিয়েছে। ‘‌জয় বাবা লোকনাথ’‌ ধারাবাহিকের ছোট্ট লোকনাথের ভূমিকায় বেশ জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে শিবম। তবে এটাই ক্যামেরার সামনে শিবমের প্রথম কাজ নয়। এর আগে একটা বিজ্ঞাপন ছবিতে কাজ করেছে সে। কাজ করেছে ‘‌শেষবেলা’‌ ছবিতে এক শিশুশিল্পীর চরিত্রে। জানাল, এই চরিত্রে অভিনয় করে তার বেশ ভালই লাগছে। ‘‌বিশেষ করে জটা আর ধুতি-‌ফতুয়া পড়তে বেশ ভাল লাগে’‌ জানাল শিবম। কিন্তু কার চরিত্রে অভিনয় করছে সেটা কি জানে শিবম?‌ ‘‌কেন জানব না?‌ আমাদের বাড়িতেও তো ববা লোকনাথের পুজো হয়। আমাদের বাড়ির কাছেই ধুবুলিয়াতেও বিরাট মেলা হয় বাবা লোকনাথকে নিয়ে’‌, এক নিঃশ্বাসে বলে দিল শিবম। তবে অভিনয়ের কারণে এখন অবশ্য মায়ের সঙ্গে কুদঘাটেই থাকে সে। জানাল, বাবা আর ঠাম্মি থাকেন সেই কৃষ্ণনগরেই। এখন আর ইচ্ছে থাকলেও কৃষ্ণনগর যেতে পারে না শিবম। সেই কারণে মনে বেশ দুঃখও আছে শিবমের। নিজেই জানাল, ‘‌এই তো কয়েকদিন আগে শুটিং বন্ধ ছিল। তখন ঘুরে এসেছি কৃষ্ণনগরে। আমার স্কুলের বন্ধুদের সঙ্গে দেখা করেছি। প্রিয়ম, মেঘদীপ, প্রিয়াংশু—ওদের কাছে তো মোবাইল নেই। আমার কাছেও মোবাইল নেই। তাই ইচ্ছে করলেও ওদের সঙ্গে কথা হয় না। মাঝে মাঝে খুব খারাপ লাগে।’‌‌ তবে বন্ধুর এই অভাব অনেকটাই মিটিয়ে নিয়েছে অরণ্য ধারাবাহিকের সেটেই। ধারাবাহিকের বেণী আর গোপালের সঙ্গে শুটিংয়ের ফাঁকে বল খেলে সে। আবার একসঙ্গে শুটিংয়ের ফাঁকেই নিয়ম করে পড়াশোনা করতে বসে। জানাল, ‘জানো, ধারাবাহিকে আমার মা হয়েছে সৌমিলি আন্টি। আন্টির সঙ্গে আমার খুব ভাব। আর বাবার চরিত্রে অভিনয় করছেন অরিন্দম আঙ্কল। অরিন্দম আঙ্কল তো আমার সঙ্গে বলও খেলেন।’‌ শিবম জানাল ক্রিকেট ওর প্রিয় খেলা। এখন থেকেই বিরাট কোহলির ভক্ত সে। তবে কি বড় হয়ে ক্রিকেটার হবে শিবম?‌ ‘‌না, না। আমি তো আই পি এস অফিসার হব’‌, জানাল শিবম। আর অভিনয়?‌ ‘‌অবশ্যই অভিনয়টাও করব। অঙ্কুশের মত অভিনয় করব আমি—জানিয়ে দিল শিবম।

জনপ্রিয়

Back To Top