‌আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ ‘‌আজ খুশ তো বহুত হোগে তুম’‌, ব্যারিটন গলার, ছ’ফুটের ওপর ‌উচ্চতার লোকটির গলা শুনতে পাচ্ছেন তো?‌ আর যদি আপনি সত্তর দশকের হিন্দি ছবির বড় ফ্যান হন, তাহলে আপনার খুশির দিন তো বটেই। বহুদিন পর আবার পর্দায় দাদাসাহেব ফালকেপ্রাপ্ত মিস্টার ‘‌অ্যাংরি ইয়ন ম্যান’– কে দেখতে পাবেন আপনি। আর সোমবার তার ফার্স্ট লুকটাও বেরিয়ে গেল, ‘‌ঝুন্ড’‌। অমিতাভ বচ্চন পিছন ফিরে দাঁড়িয়ে আছেন। সামনে বাঁদিকে একটি বল ও ডানদিকে একটি ভাঙা ম্যাটাডোর। তিনি তাকিয়ে আছেন বলটার দিকে। বিজয় বারসের গল্প জানেন?‌ তিনি হলেন প্রথম, যিনি রাস্তায় ফুটবল খেলার জন্ম দিয়েছিলেন। একটি সংগঠন তৈরি করেছিলেন নাগপুরে। নাম দিয়েছিলেন ‘‌স্লাম সকার’‌, অর্থাৎ বস্তির ফুটবল।‌ দুস্থ ছেলেমেয়েদের জন্য তাঁর এই উদ্যোগ। এই ছবিটি তাঁরই বায়োপিক। পরিচালক নাগরাজ মঞ্জুলে ২০১৬ সালে ‘‌সইরাট’ ছবিটি ‌বানিয়েছিলেন। যার সাড়া পড়ে গিয়েছিল গোটা দেশে। বলিউডে তাঁর রিমেকও বেরিয়ে গেল, ‘‌ধড়ক’‌। এরপর মঞ্জুলে পা দিলেন বলিউডে। দেখা যাক ‘‌সইরাট’‌– এর মতো সাড়া ফেলে কিনা ‘‌ঝুন্ড’। তবে হ্যাঁ, বাংলার জামাইয়ের জন্য এ ছবি যে লোকমুখে এখনই জনপ্রিয় হয়ে গিয়েছে তা এখনই বলা যেতে পারে।‌ তবে ছবিটি কবে বড়পর্দায় মুক্তি পাবে, সেবিষয়ে এখনই কিছু জানা যায়নি। আগামীদিনে অমিতাভের আরও তিনটি ছবি মুক্তি পেতে চলেছে। ‘‌ব্রহ্মাস্ত্র’, ‘‌গুলাবো সিতাবো’‌ ও ‘‌চেহ্‌রে’।‌ ‌‌

জনপ্রিয়

Back To Top