আজকালের প্রতিবেদন: ভাল আছেন অমিতাভ বচ্চন। মঙ্গলবার ভোরে নিজের ব্লগে অমিতাভ লেখেন, ডাক্তারদের এক বিশেষজ্ঞ টিম যোধপুরে পৌঁছেই তাঁকে আবার সচল করে তুলবে। তার পরই শুরু হয় খেঁাজখবর, কী হয়েছে বিগ বি–‌‌র?‌ এর পর মঙ্গলবারই সংসদ ভবনে অমিতাভ–‌‌‌পত্নী জয়া বচ্চন সংবাদমাধ্যমের সামনে জানান, ‘‌অত্যন্ত ভারী পোশাক পরে ছবির শুটিং করার ফলে ঘাড়ে আর পিঠে ব্যথা বোধ করেন অমিতাভ। এ ছাড়া আর কোনও জটিলতা নেই তঁার।’‌
এই মুহূর্তে যোধপুরের মেহরানগড়ে আমির খান, ক্যাটরিনা কাইফ, ফতিমা সানা শেখের সঙ্গে ‘ঠাগস অফ হিন্দুস্তান‌’–‌‌এর শুটিংয়ে ব্যস্ত বিগ বি। তঁার অসুস্থতার খবর পাওয়ার পরই বিশেষ বিমানে ডাক্তারদের দলটিকে উড়িয়ে নিয়ে যাওয়া হয় যোধপুরে। সেখানে পরীক্ষার পর এক দিন সম্পূর্ণ বিশ্রামের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে বিগ বি–‌‌কে। রাজস্থানের মুখ্যমন্ত্রী বসুন্ধরা রাজে এ ব্যাপারে উদ্যোগ নিয়েছেন। বসুন্ধরা রাজে কাঞ্চীপুরম ও অন্ধ্রপ্রদেশ সফরে রয়েছেন। সেখান থেকেই ফোনে নির্দেশ দেন অমিতাভের শারীরিক অবস্থার দিকে নজর রাখার এবং যত তাড়াতাড়ি সম্ভব তঁার চিকিৎসার বন্দোবস্ত করার। তবে জয়া বচ্চনের বিবৃতিতে স্বস্তির শ্বাস ফেলেছে গোটা দেশ। ১৯৮০–‌‌তে ‘‌কুলি’ ছবির শুটিংয়ে দুর্ঘটনার স্মৃতি যে আজও টাটকা অমিতাভ–‌ভক্তদের হৃদয়ে!‌
যোধপুর থেকে অমিতাভ তখন ব্লগে লিখছিলেন:‌
‌‌‌‌আচ্ছা.‌.‌.‌ এখন ভোর ৫টা.‌.‌.‌ গতকাল যে–‌রাত শুরু হয়েছিল, সেই রাত শেষের সকাল.‌.‌.‌ কাজ চলছিল.‌.‌.‌ কিছু লোককে কাজ করে জীবিকা অর্জন করতে হয়.‌.‌.‌ খুব খাটতে হয়.‌.‌.‌
খুব পরিশ্রম হল.‌.‌.‌ অবশ্য পরিশ্রম ছাড়া কবেই বা কিছু পাওয়া গেছে.‌.‌.‌ (‌জীবনে)‌ লড়াই আছে, হতাশা আছে, যন্ত্রণা, ঘাম আর কান্না আছে.‌.‌.‌ আর আছে প্রত্যাশা যে, সব কিছু ঠিকঠাক হয়ে যাবে.‌.‌.‌ কখনও সেটা হয়, বেশির ভাগ সময়ই হয় না.‌.‌.‌ কিন্তু ওই–‌যে হয় না, ওটাই অনুঘটকের কাজ করে। কেউ যখন বলে ‘‌হল না’‌, তখনই তাগাদা আসে করে দেখানোর, সফল হওয়ার, অর্জন করার.‌.‌.‌ 
ধারাবাহিকতা.‌.‌.‌ নিয়মনিষ্ঠা.‌.‌.‌ অধ্যবসায়.‌.‌.‌ ভাল ব্যবহার, ‌গুরুরা এই শিক্ষাই দেন। কিন্তু কখনও তার মধ্যে বাস্তব ঢুকে পড়ে, ওপরে ওঠার রাস্তায় সেই বাস্তববোধ সঙ্গে থাকে। এবং দেখা যায়, যারা রাস্তার মাঝখান দিয়ে হেঁটেছে, মানসিকতায় মধ্যপন্থী‌, তারাই বিজয়ী হয়েছে। যা প্রত্যাশিত ছিল না, যার দিকে কেউ নজর দেয়নি, সে–‌ই করে দেখিয়েছে.‌.‌.‌
আমরা সবাই তা–ই.‌.‌.‌ আমরাই সংখ্যাগরিষ্ঠ.‌.‌.‌ এবং (‌তার জন্য)‌ গর্বিত.‌.‌.‌ 
রাতের অন্ধকারে.‌.‌.‌ সৌন্দর্য যখন সঙ্গোপনে তাকিয়ে আছে.‌.‌.‌ তার রাজকীয়তা, তার বিশুদ্ধতা, তার থেকে উৎসারিত প্রেরণা.‌.‌.‌ কোনও দিন জানা যাবে না, কী উথালপাতাল ঘটে যায় এই চার দেওয়ালের মধ্যে.‌.‌.‌
নিশ্চয়ই কোনও মন্ত্রগুপ্তি আছে.‌.‌.‌ চৈতন্যের দরজায়, এমন–‌কি বিষয়বুদ্ধির কাছে পৌঁছনোর.‌.‌.‌ তবে অক্ষমতার আড়ালে কিছু থাকে না.‌.‌.‌ পারিপার্শ্বিকের এই সম্ভ্রমবোধ, এই স্থিতপ্রজ্ঞ ভাবের ধারেকাছে পৌঁছোতে পারে না তা.‌.‌.‌
কাল এক চিকিৎসক দল আমাকে দেখবেন। আমার শরীরটাকে নেড়েচেড়ে দেখে ঠিক আবার আমাকে খাড়া করে দেবেন। আমি খবর দেব আপনাদের.‌.‌.‌‌‌‌

জনপ্রিয়

Back To Top