আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ হঠাৎই স্ট্রোক হয়েছিল জাতীয় পুরস্কারপ্রাপ্ত সাউন্ড ডিজাইনার শহজিৎ কোয়েরির। বান্দ্রার লীলাবতী হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছিল। এমআরআইয়ে স্ট্রোক বঝা গেলেও চিকিৎসকরা চিকিৎসা করছিলেন না। ফেলে রেখেছিলেন। এমনই অভিযোগ পরিবারের লোকেদের। বেশ কয়েকঘণ্টা তাঁকে এইভাবে ফেলে রাখা হয়েছিল। তারপরেই পরিবারে লোকেরা আমির খানের সঙ্গে যোগাযোগ করেন। ২০১৬–য় দঙ্গল ছবিতে সাউন্ড ডিজাইনার হিসেবে কাজ করেছিলেন শহজিৎ। 
ঘটনা আমির খান জানার পরেই সঙ্গে সঙ্গে তাঁকে লীলাবতী হাসপাতাল থেকে সরিয়ে আন্ধেরির ধীরুভাই আম্বানির হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়। আমিরের উদ্যোগে বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকদের একটি দল গঠন করে শহজিতের চিকিৎসা শুরু হয়। এখন অনেকটাই সুস্থ শহজিৎ। 
যদিও চিকিৎসা না করে রোগীকে ফেলে রাখার অভিযোগ অস্বীকার করেছে লীলাবতী হাসপাতাল। আমির খানকে এই নিজে প্রশ্ন করা হলে তিনি কোনও মন্তব্য করতে চাননি। 

জনপ্রিয়

Back To Top