আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ ৪৪ বছরের সুপর্ণা মুখার্জি দুই সন্তানের মা, পেশায় শিক্ষাবিদ। কিন্তু নিজেকে অন্যভাবে চেনার জন্য শুধু এই পরিচয়ে থেমে থাকেননি তিনি। জাতীয় খেতাবের পর এবার তিনি চীনের গুয়াংঝাউতে মিসেস ইউনিভার্স প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করতে চলেছেন।
২০১৭ সালে ‘মিসেস ইন্ডিয়া’‌–এ অংশগ্রহণ করে তৃতীয় স্থান অধিকার করেন। তারপর তাঁর কাছে অনেকগুলো দিক উন্মুক্ত হয়ে যায়। তিনি বিভিন্ন বেসরকারি স্বেচ্ছাসেবী সংস্থার সঙ্গে যুক্ত হয়ে সমাজ উন্নয়নের কাজে নিজেকে ব্যস্ত করেন। জর্জ টেলিগ্রাফে শিশুদের বিভাগে অধ্যাপিকা পদে নিযুক্ত থাকাকালীনই ২০১৮ সালে ‘‌মিসেস এশিয়া প্যাসিফিক’‌–এ অংশগ্রহণ করে ‘‌মিসেস এশিয়া প্যাসিফিক অ্যাম্বাস্যাডর কুইন ২০১৮’ খেতাব পান। দশটি দেশের সুন্দরীদের মধ্যে তিনি ভারত থেকে বাঙালি হিসেবে এই খেতাব অর্জন করেন। ‘‌শিক্ষাজগত থেকে আমার এই দুনিয়ায় আসা শুধুমাত্র নিজেকে আলাদাভাবে পরখ করার জন্য। মিসেস ইণ্ডিয়ার বিজ্ঞাপন বেরনোর পর আমি একটু পড়াশোনা করি এই বিষয়ে। দেখলাম যে নানা জগত থেকে মহিলারা অংশগ্রহণ করেন। আর অনেক মেয়েরই একটা স্বপ্ন থাকে যে মাথায় ক্রাউন পরব, র‌্যাম্পে হাঁটব। আমার ১৪ বছরের মেয়ে উৎসাহ দেওয়ার পর আমি সিদ্ধান্ত নিলাম মিসেস ইন্ডিয়া প্রতিযোগিতায় নাম দেব।’ বললেন মিসেস ইণ্ডিয়া ২০১৭। জাতীয় স্তরে মান্যতা পাওয়ার এবার তাঁর আন্তর্জাতিক স্তরে পা রাখার সময়। গত দু’‌বছর ধরে চেষ্টা করার পর এই বছর তিনি ৯০ জন প্রতিযোগীর মধ্যে একমাত্র বাঙালি ফাইনালিস্ট। এখন তাঁর দু’‌চোখে স্বপ্ন আরও সাফল্যের। আরও উচ্চাসনে ভারত ও বিশেষ করে বাঙালির নাম উজ্জ্বল করার। আর সেই জন্যই চূড়ান্ত প্রতিযোগিতা। ২২ ডিসেম্বর থেকে টানা ১১ দিনের যাত্রার পর যেখানে মিসেস ইউনিভার্স নির্বাচিত হবেন।  ‌‌

জনপ্রিয়

Back To Top