‌‌‌‌‌সাগরিকা দত্তচৌধুরি: ‘‌করোনা থেকে সুস্থ হয়ে হাসপাতাল থেকে ছুটি পাওয়ার সংখ্যা ক্রমশ বাড়ছে। রোগীরা দ্রুত সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরছেন। এটা খুবই ভাল একটা দিক।’‌ মঙ্গলবার নবান্নে সাংবাদিক বৈঠকে একথা বলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি। তিনি বলেন, এ রাজ্যের মতো ডেথ অডিট কমিটি, কেস হিস্ট্রি অন্য রাজ্যও অনুসরণ করছে। বাংলা করলে সব ভুল, অন্যরা করলে ঠিক?
রাজ্যে ১৮টি ল্যাবরেটরিতে করোনা পরীক্ষা চলছে। আরও ৫টি অনুমোদন পেয়েছে। খুব তাড়াতাড়ি পরীক্ষা শুরু হবে বলে এদিন জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। এদিন নবান্নে ছিলেন রাজ্যের নতুন স্বাস্থ্যসচিব নারায়ণ স্বরূপ নিগম। মুখ্যমন্ত্রী নতুন স্বাস্থ্যসচিবের সঙ্গে সবার পরিচয় করিয়ে দেন। এদিকে গত চব্বিশ ঘণ্টায় নতুন করে ১১৩ জন করোনা সংক্রমণ থেকে মুক্ত হয়েছেন। রাজ্যে এখনও পর্যন্ত করোনামুক্ত হয়ে হাসপাতাল থেকে ছুটি পেয়েছেন ৬১২ জন। রাজ্যে করোনায় সুস্থতার হার (‌ডিসচার্জ রেট)‌ ২৮.‌১৬ শতাংশ। নতুন করে ১১০ জন আক্রান্ত। রাজ্যে এখনও পর্যন্ত করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ২ হাজার ১৭৩ জন। হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ১ হাজার ৩৬৩ জন। গত চব্বিশ ঘণ্টায় এই সংখ্যাটা অনেকটাই কমেছে। হাসপাতাল থেকে দ্রুত রোগীদের ছুটি হচ্ছে। এদিন করোনা সংক্রান্ত তথ্য দিয়ে রাজ্যের স্বরাষ্ট্রসচিব আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায় আরও জানিয়েছেন, নতুন করে ৮ জনের মৃত্যু হয়েছে। রাজ্যে এখনও পর্যন্ত মৃতের সংখ্যা ১২৬। গত ২৪ ঘণ্টায় নমুনা পরীক্ষা হয়েছে ৫ হাজার ৭টি। রাজ্যে এখনও পর্যন্ত নমুনা পরীক্ষার সংখ্যা ৫২ হাজার ৬২২টি। সরকারি কোয়ারেন্টিন সেন্টারে রয়েছেন ৬ হাজার ৯৭৮ জন। কোয়ারেন্টিন থেকে ছাড়া পেয়েছেন ২১ হাজার ২২ জন। হোম কোয়ারেন্টিনে রয়েছেন ২৪ হাজার ২৯৬ জন। হোম কোয়ারেন্টিন থেকে এখনও পর্যন্ত মুক্ত হয়েছেন ৬৮ হাজার ১৯৯ জন।
রাজ্যের চিকিৎসা ব্যবস্থা ভাল বলেই অতি দ্রুত রোগীরা সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরতে পারছেন বলে মনে করছে স্বাস্থ্য দপ্তরও।
বীরভূমের রামপুরহাটের বগটুই এলাকার বাসিন্দা বছর আঠেরোর এক যুবক বোলপুরের বেসরকারি কোভিড হাসপাতাল থেকে ছুটি পান। মঙ্গলবার রাতে যখন তিনি বাড়ি ফেরেন তখন তাঁর পাড়ায় ছিল রীতিমতো উৎসবের মেজাজ। পাড়ার যুবকরা বাজি ফাটিয়ে, গলায় ফুলের মালা পরিয়ে ওই যুবককে অভ্যর্থনা জানান। 
বাঘাযতীনের ডি ব্লকের বাসিন্দা বিএসএনএলের প্রাক্তন কর্মীর মৃত্যু হয়। করোনার সংক্রমণ নিয়েই তিনি এম আর বাঙুরে ভর্তি ছিলেন। কলকাতায় গার্ডেনরিচ শিপ বিল্ডার্সে কর্মরত এক প্রাক্তন সিআইএসএফ অফিসারের মৃত্যু হয়।
লকডাউন চলাকালীন কলকাতা থেকে গোপালনগরে গ্রামের বাড়িতে ফেরার পর করোনা পজিটিভ ধরা পড়ে এক শ্রমিকের। কেতুগ্রাম ১নং ব্লকের বাদশাহি রোড লাগোয়া রতনপুরে এক তরুণীর করোনা ধরা পড়েছে। তাঁকে দুর্গাপুরের সনকা কোভিড হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। ওই তরুণীর সংস্পর্শে আসা ২৩ জনকে চিহ্নিত করেছে স্বাস্থ্য দপ্তর। তাঁদের হোম কোয়ারেন্টিনে রাখা হবে।  
পূর্ব মেদিনীপুরে কোলাঘাটের পরমানন্দপুর গ্রামের ২২ বছরের এক যুবকের করোনা ধরা পড়েছে, জানিয়েছেন জেলার মুখ্য স্বাস্থ্য আধিকারিক নিতাইচন্দ্র মণ্ডল। জানা গেছে, ওই যুবক আলিপুরের এক বেসরকারি হাসপাতালের স্বাস্থ্যকর্মী। ৩০ এপ্রিল অসুস্থ হয়েই বাড়ি ফিরেছিলেন। পরিবারের তিন সদস্যকে চণ্ডীপুর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

জনপ্রিয়

Back To Top