সাগরিকা দত্তচৌধুরি: ‘‌যে কোনও সময়ে লড়াইয়ের জন্য প্রস্তুত আমরা। এই পেশায় যেদিন থেকে এসেছি, সেদিন থেকে রোগীর সেবাই আমাদের প্রধান উদ্দেশ্য।’‌— মঙ্গলবার আন্তজার্তিক নার্স দিবসে এই বার্তাই দিলেন নার্সরা। কোভিড যুদ্ধে চিকিৎসকদের পাশাপাশি নার্সরাও নিরন্তর লড়াই চালিয়ে যাচ্ছেন। বিভিন্ন হাসপাতালে রোগীদের সুস্থ করে তোলার পেছনে নার্সদের ভূমিকা যে কোনও অংশে কম নয় তা এক বাক্যে মেনে নিয়েছেন রোগী থেকে চিকিৎসক সকলেই। খোদ মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জিও নার্সদের কাজের প্রশংসা করেন এদিন। এস এস কে এম হাসপাতালে নার্সদের ফুল ছড়িয়ে শঙ্খধ্বনি দিয়ে সংবর্ধনা দেওয়া হয়। ট্রমা কেয়ার সেন্টারের গেটে ওয়েস্ট বেঙ্গল আইএনটিইউসি সেবাদলের সভাপতি প্রমোদ পান্ডের উদ্যোগে।
এসএসকেএমের নার্সিং সুপারিনটেনডেন্ট মনীষা ঘোষ বলেন, ‘আমাদের লড়াই চলছে। আমরা আগেও সেবা দিতাম, এখনও দিচ্ছি। পরিবার, সমাজ সকলের সহযোগিতা রয়েছে। টেনশন, রিস্ক নিয়ে মাথা ঘামাই না, কারণ যেদিন থেকে নার্স হয়েছি সেদিন থেকে জানি যে, ঝুঁকির মধ্যেই কাজ করতে হবে। করোনার ডিউটির মধ্যে ভয়ের কিছু নেই। যাবতীয় সুরক্ষাবিধি মেনেই সেবা করছি। এক এক সময়ে এক একটা মহামারী আসে। তখনও আমরা লড়াই করেছি।’‌ 
এদিন সল্টলেক আমরি হাসপাতালে করোনাজয়ীর জন্মদিন পালন করে তাঁর হাতে বার্থডে কার্ড ও কফি মগ তুলে দিলেন নার্সরা। সকলে এক সুরে গাইলেন ‘‌হ্যাপি বার্থডে টু ইউ ডিয়ার’। ‌করোনাকে জয় করেছেন হাওড়ার শিবপুরের ৬০ বছরের এক প্রৌঢ়া। ২৮ এপ্রিল তিনি ভর্তি হয়েছিলেন। চিকিৎসার জন্য পরিবারের কারও সঙ্গে যোগাযোগ হয়নি। জন্মদিনে মন খারাপ করে বসেছিলেন। শেষে প্রৌঢ়ার মুখে হাসি ফোটালেন নার্সরা। আইসোলেশন ওয়ার্ডেই চকলেট কেক কেটে পালন করলেন জন্মদিন। এদিনই তাঁর হাসপাতাল থেকে ছুটি হয়। ছুটির আগে মন ভাল করা এই ঘটনার সাক্ষী রইলেন ওয়ার্ডের অন্য রোগীরাও। এখন তাঁর শারীরিক অবস্থা স্থিতিশীল। প্রৌঢ়া মাতলেন জন্মদিনের আনন্দে। প্রৌঢ়ার সঙ্গে ভর্তি হয়েছিলেন তাঁর ৩৯ বছরের ছেলেও। তাঁরও রিপোর্ট পজিটিভ এসেছিল। গত সপ্তাহে ছেলেকে ছুটি দেওয়া হয়েছে। বিশ্বে করোনা–যুদ্ধে যে সমস্ত নার্স, স্বাস্থ্যকর্মী মারা গেছেন মোমবাতি জ্বালিয়ে তাঁদের স্মরণ করেন কর্তব্যরত নার্সরা।
কলকাতা মেডিক্যালের নার্সিং কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ মানসী জানা বলেন, ‘ফ্লোরেন্স নাইটিঙ্গেলের ২০০তম জন্মবার্ষিকীতে এই বছরটা ‘‌ইয়ার অফ দি নার্স অ্যান্ড দি মিডওয়াইভস’‌ বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা ঘোষণা করেছে। ’‌‌‌ ছবি: আজকাল

জনপ্রিয়

Back To Top