ঘূর্ণিঝড় ফণী নিয়ে দেশের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির বৈঠকের বিরোধিতা করেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি। তিনি বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী কেন এখন ফণী নিয়ে খোঁজখবর নিতে চাইছেন?‌ উনি কলাইকুন্ডায় নামবেন। এক কাপ চা খাবেন। আমি সব কাজ ফেলে ওঁর পাশে ছবি তুলব। পরে উনি বলবেন, ক্ষয়ক্ষতি নিয়ে খোঁজখবর করেছেন। এখন এই খোঁজের কোনও দরকার নেই। এক্স প্রাইম মিনিস্টারের সঙ্গে আমার দেখা করার কোনও দরকার নেই। দেশে নতুন প্রধানমন্ত্রী এলে তাঁর সঙ্গে কথা বলব। আমরা মুখ্যমন্ত্রীর কথায় ঢুকছি না। ধরে নিচ্ছি তিনি বলেছেন তঁার মতো। আচ্ছা, ফণী ঝড় উপলক্ষে প্রধানমন্ত্রী কতবার নিজের ছবি প্রকাশ করে ফেলেছেন?‌ ঝড় আসার আগে সেই দিল্লির বৈঠক থেকে শুরু হয়েছে। তারপর আকাশপথে ওডিশা সফর, সেখানকার মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠকের ছবি— কোনও সুযোগই ছাড়েননি। কেন?‌ ভোটের মধ্যে প্রাকৃতিক বিপর্যয় নিয়ে এই প্রচার থেকে নিজেকে সরিয়ে রাখা যেত না?‌ ঘরের দরজা বন্ধ করে না হয় বৈঠক সারতেন, বাকিটা সচিবরা করতে পারতেন না?‌ এ রাজ্যে ২০১৫, ২০১৬, ২০১৭ সালে বন্যা হয়েছিল। কেন্দ্র থেকে ক’‌টাকা সাহায্য এসেছিল?‌ ভোটের মধ্যে এত দরদ দেখানোর অর্থ তো একটাই। দুর্যোগ মোকাবিলার টাকা বরাদ্দ নিয়েও প্রধানমন্ত্রী ভোটের সভায় ঘোষণা করেছিলেন। কেন করবেন?‌ এই টাকা তো রাজ্যের প্রাপ্য। এই বিষয়গুলি কি সচিব পর্যায়ে আলোচনা হলে ঠিক হত না?‌ আগামী দিনে নির্বাচন কমিশন এমন কোনও বিধির কথা ভাবতে পারে।‌‌

জনপ্রিয়

Back To Top