‘‌আমদানি’‌ বিদেশ থেকে। পৃথিবী যখন গ্লোবাল ভিলেজ, নানা দেশে যাতায়াত থাকবে। কিন্তু, সতর্কতা না থাকলে চরম ক্ষতি। বাংলায় আক্রান্তদের মধ্যে অধিকাংশের বিদেশ–যোগ, অথবা ভিনরাজ্য থেকে আসা— অনেকের সংস্পর্শে এসেছেন বিদেশ থেকে আসা লোকেদের। রাজ্যে প্রথম আক্রান্ত যিনি, অক্সফোর্ডের ছাত্র। তিনি এবং অভিভাবকরা পরীক্ষা করাতে দেরি করে ফেলেন। আবার, এক তরুণী, ব্রিটেনে পড়েন, বিমানবন্দরে নেমে সোজা আইডি–তে। সচেতনতা। সারা দেশে দেখা যাচ্ছে, অনেকের বিদেশ–যোগ। অধিকাংশ ফিরেছেন ব্রিটেন থেকে। বিলেতফেরত বড় ব্যাপার ছিল। লুকোনোর দিন চলে এল। ব্রিটেনের কথা বিশেষভাবে বলতে হবে। যখন চীন থেকে ইওরোপে ঢুকে পড়েছে ভয়াল ভাইরাস, ব্রিটেনের প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন, সম্ভবত ডোনাল্ড ট্রাম্পের আচরণে অনুপ্রাণিত হয়ে বিপদ ওড়ালেন। ইওরোপের নানা দেশে, ইতালি, স্পেন, ফ্রান্সে ছড়াতে শুরু করেছে, ব্রিটেনের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী বললেন, এত গুরুত্ব দেওয়ার দরকার নেই। কী হল?‌ উদাহরণ খেলার মাঠ। অলিম্পিক যোগ্যতার বক্সিং প্রতিযোগিতা চলতে দেওয়া হল। মারাত্মক। অল ইংল্যান্ড ব্যাডমিন্টন প্রতিযোগিতা চলতে দেওয়া হল। প্রথম রাউন্ডে হেরে গেছেন, তবু শুরুতেই সাইনা নেহওয়াল বলেছেন, ব্যবসা করা হচ্ছে, মানুষের কথা না ভেবে। কোয়ার্টার ফাইনাল ম্যাচের আগের দিন পি ভি সিন্ধু ফোন করলেন ভারতের ক্রীড়ামন্ত্রী কিরেন রিজিজুকে, কী করব?‌ খেলো। কোনও প্রস্তুতি থাকল না। ব্রিটেনে ঢুকল। আক্রান্ত প্রিন্স চার্লস। তারপর, স্বাস্থ্যমন্ত্রী। তারপর, প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন। লকডাউনে দেরি। ‘‌সভ্য’‌ দেশ, কিন্তু আচরণ?‌

জনপ্রিয়

Back To Top