আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ বাজার খুলতেই ফের বড়সড় ধস শেয়ার বাজারে। পরিস্থিতি যাতে হাতের বাইরে চলে না যায়, সেই কারণে একঘন্টার জন্য বন্ধ করে দেওয়া হল ন্যাশনাল স্টক এক্সচেঞ্জ। শুক্রবার সকালেই সেনসেক্সে বড়সড় পতন। সকালেই সেনসেস্ক পড়ল প্রায় ৩০০০ পয়েন্ট। এই মুহূর্তে সেনসেক্স দাঁড়িয়ে ২৯,‌৬৮৭.‌৫২ পয়েন্টে। পাশাপাশি নিফটিতেও রেকর্ড। নিফটি পড়ল প্রায় ১০০০ পয়েন্ট। দু’‌বছরে এই প্রথমবার ন’‌হাজারের নিচে নেমে গেল নিফটি। নিফটি এখন ৮,৬২৪.‌০৫ পয়েন্টে দাঁড়িয়ে। জানা গিয়েছে, শেয়ার বাজারে পতন রুখতেই বন্ধ করা দেওয়া হয়েছে স্টক এক্সচেঞ্জ। 
গতকালও শেয়ার বাজারে বড় পতন লক্ষ্য করা গিয়েছিল। করোনা আতঙ্কের জেরে বিগত বেশকয়েকদিন ধরেই বাজারে মন্দা। ফলে মন্দার মুখ দেখেছে ভারতীয় মুদ্রাও। ডলারের তুলনায় ৮২ পয়সা পড়ে যায় টাকার দাম। এক ডলারের দাম ভারতীয় মুদ্রায় এখন ৭৪.৫০ টাকা। মার্কিন রাষ্ট্রপতি ডোনাল্ড ট্রাম্প গতকালই করোনা রুখতে বিশেষ নিষেধাজ্ঞা জারি করেছেন। আগামী ৩০ দিন ইউরোপ এবং ব্রিটেনের থেকে সমস্ত নাগরিকদের আমেরিকা যাওয়ার ভিসা বাতিল করেছেন। একই ভাবে ভারতও সিদ্ধান্ত নিয়েছে ১৫ এপ্রিল পর্যন্ত সমস্ত ট্যুরিস্ট ভিসা বাতিল করার। বিশ্বের প্রথম পাঁচটি অর্থনীতির মধ্যে থাকা তিনটি দেশই (আমেরিকা, চিন, ভারত) নিজেদের সীমান্ত একপ্রকার ‘সিল’ করে দেওয়ার কারণে এর প্রত্যক্ষ প্রভাব পড়েছে দেশীয় এবং বিদেশের বাজারে। অপরিশোধিত তেলের দামেও পতন দেখা গিয়েছে। এতেও বড় চোট লাগে শেয়ার বাজারে। বিগত কয়েকদিনে প্রায় ১২ লক্ষ কোটির ক্ষতি শুধু ভারতীয় বাজারেই হয়েছে। বিনিয়োগকারীরা বুঝতে পারছেন না কবে পরিস্থিতি স্বাভাবিক হবে, তাই ঝুঁকি নিয়ে শেয়ার কেনার আগ্রহ দেখাচ্ছেন না কেউই। ফলে করোনা আতঙ্কের মধ্যে দিন কাটানো বাজার কবে আচ্ছে দিন দেখতে পাবে তা নিয়েও সংশয় থেকে যাচ্ছে।

জনপ্রিয়

Back To Top