আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ আগামী ৪ নভেম্বরের মধ্যে সব দেশকে ইরান থেকে অপরিশোধিত তেল কেনা বন্ধ করতে বলেছে আমেরিকা। নাহলে অর্থনৈতিক নিষেধাজ্ঞার কোপে পড়তে হবে বলে হুঁশিয়ারি দিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট। ইরান ভারতের তৃতীয় তেল আমদানিকারী দেশ। তাই ভারতীয়দের কপালেও চিন্তার ভাঁজ। কিন্তু, বিশেষজ্ঞরা এক্ষেত্রে বিকল্প পথ খোঁজার চেষ্টা করছেন। তাঁরা বলছেন, টাকা দিয়ে তেল কিনলে এই সমস্যার সমাধান অনেকটাই সম্ভব। তাহলে কয়েক হাজার কোটি টাকার বিদেশি মুদ্রা খরচেও রাশ টানা সম্ভব হবে। কারণ, ভারত যেহেতু ন্যাটোর সদস্য নয়, সেহেতু মার্কিন নিষেধাজ্ঞার কাছে বাধিত নয় ভারত। ২০১০–১৪ সালে তেহরানের উপর থাকা অর্থনৈতিক নিষেধাজ্ঞার সময়ও দিল্লি এভাবেই কাজ করেছিল। বিশেষজ্ঞরা আরও বলছেন, এই ব্যবস্থায় ইরান থেকে তেলের দামে ছাড় না পেলেও দাম মেটানোর ক্ষেত্রে অনেক লাভবান হবে ভারত।
তবে ইরান থেকে পুরোপুরি তেল আমদানি বন্ধ করে দেওয়া মুশকিলের হবে ভারতের পক্ষে। এসবিআই ইতিমধ্যেই কেন্দ্রীয় সরকার এবং ভারতীয় তেল পরিশোধন কোম্পানিগুলিকে চিঠি লিখে জানিয়ে দিয়েছে ৪ নভেম্বরের পর থেকে তারা ইরানের তেলের লেনদেন সংক্রান্ত বিষয় আর তদারক করতে পারবে না। এখনই কেন্দ্রীয় সরকার ইরান থেকে তেল আমদানির সম্পর্ক ছেদ করার সরকারি ঘোষণা না করলেও বেসরকারি কোম্পানিগুলি ইতিমধ্যেই ইরান থেকে তেল আমদানি কমাতে শুরু করেছে। ইরান ভারতকে শুধু এই আর্থিক বছরেই ২৭.‌২ মিলিয়ন অপরিশোধিত তেল রপ্তানি করেছে।       

জনপ্রিয়

Back To Top