আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ রাজ্য নয়, কেন্দ্র বাজার থেকে ধার নিয়ে রাজ্যের জিএসটি বকেয়া মেটাবে। তবে তা ‘‌ব্যাক–টু–ব্যাক’ ঋণ হিসেবে। বৃহস্পতিবার জানালেন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারামন। আরেকটু ঘুরিয়ে বললে দাঁড়ায়, ঋণ রাজ্যই নেবে। কেন্দ্র এখানে মধ্যস্থতাকারী হিসেবে কাজ করবে। শুরুতে রাজ্যগুলিকে ঋণ নেওয়ার প্রস্তাব দিয়েছিল কেন্দ্র। অর্থমন্ত্রকের প্রথম বিকল্পে ২১টি রাজ্যের সায় থাকলেও কেরল, পশ্চিমবঙ্গ, পাঞ্জাবের মতো বেশ কয়েকটি রাজ্য তাতে আপত্তি জানিয়েছিল। তারপরই কেন্দ্র সিদ্ধান্ত নিল, জিএসটি কার্যকর করতে গিয়ে ঘাটতির পুরো অঙ্ক অর্থাৎ মোট ১.‌১ লক্ষ কোটি টাকা বাজার থেকে ঋণ নিয়ে তা রাজ্যকে ঋণ হিসেবে দেওয়া হবে। অর্থাৎ বাজার থেকে যে শর্তে টাকা ধার করবে কেন্দ্র, তা পূরণ করবে রাজ্য। এক্ষেত্রে রাজকোষে চাপ পড়বে না, বলছেন অর্থমন্ত্রকের এক আধিকারিক। কেরলের অর্থমন্ত্রী থমাস আইজ্যাক বলেন, ‘‌ভাল পদক্ষেপ। তবে আমি চাই, চলতি বছরেই ক্ষতিপূরণ ঘাটতির পুরো অঙ্ক অর্থাৎ ২.‌৩৫ লক্ষ কোটি টাকা রাজ্যেগুলিকে মিটিয়ে দিক কেন্দ্র।’‌
প্রসঙ্গত, প্রথম বিকল্পে ৯৭ হাজার কোটি টাকার ঘাটতির যে হিসেব দেখিয়েছিল কেন্দ্র, তা জিএসটি আয়বৃদ্ধি ১০% ধরে। অতিমারী পরিস্থিতিতে তা কমে ৭% হয়েছে, যে কারণে ঘাটতির হিসেবে বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১.‌১ লক্ষ কোটি টাকা।

জনপ্রিয়

Back To Top