আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ রিজার্ভ ব্যাঙ্ক জানিয়ে দিল, এটিএম থেকে টাকা তুলতে গিয়ে টেকনিক্যাল বা অন্য কোনও কারণে ট্র্যানজ্যাকশন বাতিল হলে তা গণ্য হবে না ‘মাসিক পাঁচটি বিনামূল্যের এটিএম ট্র্যানজাকশন’‌–এর মধ্যে। বর্তমানে নিজের ও অন্য ব্যাঙ্ক মিলিয়ে মাসে ৫টির বেশি লেনদেন করলেই তার জন্য আলাদা চার্জ নেয় ব্যাঙ্কগুলি। তবে মুশকিল হল অনেক সময়েই এটিএমে টাকা তোলার জন্য বোতাম টিপলেও টাকা বেরোয় না। কখনও যান্ত্রিক ত্রুটির কারণে, কখনও আবার এটিএমে টাকা না থাকায় এমনটা হয়। গ্রাহকের প্রয়োজন না মিটলেও টাকা তোলার এই চেষ্টাকেই নিখরচায় লেনদেনের তালিকাভূক্ত করে নেয় ব্যাঙ্কগুলি। ফলে ব্যাঙ্ক বা এটিএমের ত্রুটির কারণে ফ্রি ট্রানজ্যাকশনের অনেক সুযোগ হাতছাড়া হয়ে যায় গ্রাহকের।
এবার এই নিয়মের ক্ষেত্রেই বেশ কিছু পরিবর্তন আনল রিজার্ভ ব্যাঙ্ক। একটি বিজ্ঞপ্তিতে রিজার্ভ ব্যাঙ্ক জানিয়ে দিয়েছে, ‘আমরা জানতে পেরেছি, প্রযুক্তিগত কারণ বা এটিএমে পর্যাপ্ত ক্যাশ না থাকা ইত্যাদি কারণে ট্র্যানজ্যাকশন বাতিল হলে তাকেও ধরা হয় বিনা খরচের এটিএম ট্র্যানজাকশনের মধ্যে। এবার থেকে ট্র্যানজাকশন বাতিল হলে তাকে বৈধ এটিএম ট্র্যানজ্যাকশন হিসেবে ধরা হবে না। তার জন্য কোনও চার্জও কাটা হবে না। এমনকী ব্যালান্স এনকোয়ারি, চেক বুক রিকোয়েস্ট, কর প্রদান, ফান্ড ট্রান্সফারকে ফ্রি এটিএম ট্র্যানজাকশনের মধ্যে ধরা হবে না।’‌ ফলে রেহাই পেলেন গ্রাহকরা।
এটিএম থেকে কর প্রদান করলে আগে সেটিকে লেনদেন হিসাবে ধরা হত। এখন আর কোনও ‘ট্রানজ্যাকশন ফি’ দিতে হবে না। এটিএম থেকে অন্য ব্যাঙ্কে টাকা পাঠানো বা ‘ফান্ড ট্রান্সফার’কেও আগে লেনদেন হিসাবে গন্য করা হত। এখন আর কোনও ‘ট্রানজ্যাকশন ফি’ দিতে হবে না। এটিএম থেকে টাকা তোলা ছাড়া আর কোনও কিছুকেই বৈধ লেনদেন বা ‘চার্জেবল ট্রানজ্যাকশন’ হিসাবে ধরা হবে না।

জনপ্রিয়

Back To Top