শ্রাবণ মেঘের দিন। গোলপার্ক থেকে গড়িয়াহাটের পথে যেতে যেতে দেখি ফুটপাথে শোভা পাচ্ছে ‘রবীন্দ্র প্রসঙ্গ’, তুলে নিই পরম আদরে ‘রবীন্দ্রনাথের ১২৫তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে প্রবন্ধ সংকলন’, প্রকাশক তথ্য ও সংস্কৃতি বিভাগ, পশ্চিমবঙ্গ সরকার। সূচিপত্র দেখেই মনে হল এই বইটি সংগ্রহ করতেই হবে। প্রভাতকুমার মুখোপাধ্যায়, প্রবোধচন্দ্র সেন, অমিতা ঠাকুর থেকে শৈলজারঞ্জন মজুমদার, শান্তিদেব ঘোষ; সুকুমারী ভট্টাচার্য, পবিত্র সরকার— কাকে ছেড়ে কার কথা বলি! বিষয়ভাবনাও চমৎকার। রবীন্দ্রনাথের ভারতবর্ষীয়তা ও বাঙালিত্ব, বিভিন্ন ভারতীয় ভাষায় রবীন্দ্রচর্চা, গণমুক্তির স্বপ্ন কিংবা তাঁর নন্দনতত্ত্ব— নানা রঙের রবীন্দ্রনাথ এক মলাটে। শুধু তা–ই নয়, রবীন্দ্রনাথের আত্মপ্রতিকৃতির সঙ্গে অবনীন্দ্রনাথ, গগনেন্দ্রনাথ ঠাকুরের আঁকা ছবি। চারশোর বেশি পৃষ্ঠার এই বইটি প্রথম দেখাতেই ভাল লেগে যায়। ‘কবিকৃতি ও সমকাল’ শীর্ষক শেষ লেখাটি সম্পাদকমণ্ডলীর পক্ষে লিখেছেন ক্ষুদিরাম দাস। রবীন্দ্রসাহিত্যের রচনা ও প্রকাশগত তথ্যের পাশাপাশি স্থান পেয়েছে সমকালীন উল্লেখযোগ্য সংবাদ। ৩০ জুলাই রবীন্দ্রনাথ লিখছেন শেষ কবিতা ‘তোমার সৃষ্টির পথ’। আর ‘৭ আগস্ট (২২ শ্রাবণ) ১২–৩০ মিনিটে কবির মৃত্যু।’ দরদাম না–করেই ৮০ টাকায়...। ■ 

জনপ্রিয়

Back To Top