লালমাটি
মনসাপূজার ঝাঁপান

লালমাটি প্রকাশন থেকে বেরোচ্ছে বীরেন্দ্রকৃষ্ণের রচনাসমগ্র–‌র দ্বিতীয় খণ্ড। বীরেন্দ্রকৃষ্ণকে মহিষাসুরমর্দিনীর দুর্দান্ত ভাষ্যকার হিসাবে বাঙালি চেনে। তবে তাঁর গদ্য লেখার হাতটিও ছিল অসাধারণ। বিরূপাক্ষ ছদ্মনামে লিখতেন। সে সব বই এখন দুর্লভ। তাই ওঁর রচনাসমগ্র পাঠকদের বিশেষ প্রাপ্তি হবে। আর লীলা মজুমদারের লেখার ভক্ত তো অগনিত। তাঁর ইতিমধ্যেই রচনাসমগ্র‌র ১২টি খণ্ড প্রকাশিত। এবার বেরোচ্ছে ১৩তম খণ্ড এবং গল্পসমগ্র ‘‌পেরিস্তান’‌। সত্তর–‌আশির দশক ছোটদের গোয়েন্দা গল্পে মোহিত করে রাখত স্বপনকুমারের চটি বইগুলো। গোয়েন্দা দীপক চ্যাটার্জি নিয়ে যেত এক কল্পনার জগতে। সেই সব লেখা একত্র করে প্রকাশ হচ্ছে। এবার ৭ম খণ্ড। শান্তিনিকেতনে ছড়িয়ে–‌থাকা কবিগুরুর স্মৃতিসম্বলিত হাজারও গল্পের মধ্যে থেকে চয়ন করা বেশ কিছু গল্প নিয়ে প্রকাশিত হচ্ছে অমর পালের ‘‌রবীন্দ্রনাথ ও শান্তিনিকেতন টুকরো গল্প’‌। অমলকান্তি পাণ্ডের গবেষণাগ্রন্থ ‘লোকসংস্কৃতি দর্পণে স্বর্পচারণা ও মনসাপূজার ঝাঁপান’ লোকসংস্কৃতি বিষয়ে আগ্রহ বাড়াবে‌। বিভিন্ন বিষয়বস্তুর প্রথম উদ্ভাবনের গল্পকথা নিয়ে ইভা চক্রবর্তীর ‘‌জন্মকথা’‌ও একটি গবেষণাগ্রন্থ। থাকছে চকিতা চট্টোপাধ্যায়ের সাতটি শ্রুতি নাটকের সঙ্কলন ‘‌শ্রুতিতে সুচিত্রা’, কাজল সুর সম্পাদিত ‘‌হাজার বছরের আবৃত্তির কবিতা’‌ প্রভৃতি। ‌■


ধানসিড়ি
কর্ণগড়ের রানি শিরোমণি

রানি লক্ষ্মীবাঈ–এর প্রায় ষাট বছর আগে ভারতে ব্রিটিশ বিরোধী আন্দোলনে নেতৃত্ব দিয়েছিলেন কর্ণগড়ের রানি শিরোমণি। গণবিদ্রোহ করেছিলেন প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর মানুষজন। এই চুয়াড় বিদ্রোহ ও রানি শিরোমণির কাহিনী নিয়ে ধানসিড়ি থেকে প্রকাশিত হচ্ছে উপন্যাস ‘‌প্রথম দ্রোহিনী’‌। লেখক সুমন মহান্তি। অন্যদিকে কাজল সেনের ‘‌তনু’‌ এক অন্যরকম নিরীক্ষা মূলক গল্পসঙ্কলন। অসমাপ্ত ও অসম্পূর্ণ খসড়াকে অবলম্বন করে ১৬ জন গল্পকার তাঁদের গল্প সাজিয়েছেন। একটি অসমাপ্ত গল্পের নিরিখে গড়ে উঠেছে ১৬টি পূর্ণাঙ্গ কাহিনী। বৌদ্ধশাস্ত্রের ‘‌মার’‌ অবলম্বনে রাজপুত্র সিদ্ধার্থর জীবনকে দেখেছেন লেখক। মেক্সিকান শিল্পী ফ্রিদা কাহ্‌লোর ডায়েরি সহজ ভাষায়  পরিবেশন করছেন ঈশানী রায়চৌধুরী। মাত্র সাতচল্লিশ বছরের জীবনে যতগুলি ছবি এঁকেছিলেন ফ্রিদা তার ৫৫টিই আত্মপ্রকৃতি। কেন?‌ উত্তর মিলবে। ঈশানীর ভাষান্তরেই প্রকাশিত হতে চলেছে আর কে নারায়ণের ‘‌মালগুড়ি ডেজ’‌। বাংলাদেশের চলচ্চিত্রকার তনভীর মোকাম্মেল তাঁর অভিজ্ঞতাজাত দেশভাগের যন্ত্রণাকে ‘‌বিষাদনদী’‌ বইতে গেঁথেছেন তিনটি আলাদা আখ্যানে। অরুণ অধিকারীর ‘‌গোয়েন্দা কমলেশ’‌ রহস্য রোমাঞ্চ পাঠকদের নিয়ে যাবে ভাবনার জগতে। ■


যাপনচিত্র
বিনয় মজুমদারের ‘‌এই সব সত্য’‌

অন্যধরনের বইয়ের প্রাচুর্য যাপনচিত্র প্রকাশনায়। শিল্পী হিরণ মিত্রের কলমে ‘‌ভিনদেশী আখ্যান’‌–‌এ আছেন সেই শিল্পীরা, যাঁরা ভারতের বাইরে শিল্পকর্মে নানান ঘটনা ঘটিয়েছেন। এই বিচিত্রতা তাঁদের নিজেদের চলন, যা সাধারণ নয়। অন্যদিকে বিনয় মজুমদারের লেখা ‘‌এই সব সত্য’‌ এবারের মেলার অন্যতম আকর্ষণ। গায়ত্রী, ঈশ্বরী নিয়ে বিনয়ের যে রহস্য সৃষ্টি, এই বইতে তারই উদ্ঘাটন করেছেন তিনি। একসময় প্রকাশ করবেন বলে এই বই লিখেও প্রকাশ করতে পারেননি। সেই পাণ্ডুলিপিই হুবহু ছাপার অক্ষরে প্রকাশিত হচ্ছে। ১৯৫৭ থেকে ২০১৮— সমাজ, সাহিত্য সংস্কৃতি, ভাষা আন্দোলন, রবীন্দ্রনাথ, নজরুল ইসলাম, জসীমউদ্দিন, বেগম রোকেয়া— আরও নানান বিষয় নিয়ে গুরুত্বপূর্ণ ও প্রাসঙ্গিক প্রবন্ধ ঠাঁই পেয়েছে আনিসুজ্জামানের ‘‌নানা বিষয়’‌ প্রবন্ধ সঙ্কলনে। ‌শীতের কুয়াশাঢাকা জীবনের প্রতিচ্ছবির প্রতিলিপি ধরা পড়বে কবি তৃণা চক্রবর্তীর কবিতাগ্রন্থ ‘‌পিকাসো জানতো’‌–‌য়। বইটির প্রতিটি অক্ষরে মিশে রয়েছে ভিন্ন ভিন্ন দৃষ্টিকোণ থেকে জীবন দেখার আখ্যান। এতে আবেগের জায়গা বড় কম। বরং পরতে পরতে ছুঁয়ে যাবে পাঠকের সংবেদনশীল অনুভূতি। ■


গুরুচণ্ডা৯
‘এখন মৃত্যুর ঘ্রাণ’

গুরুচণ্ডা৯ আনছে ভিন্ন স্বাদের একগুচ্ছ বই। সাত দশক আগে ভারতের স্বাধীনতা পাঞ্জাব ও বাংলার মানুষকে উপহার দিয়েছিল আতঙ্ক। সঙ্গে পরিচয়হীনতার নতুন লড়াই। এনআরসি এবং ক্যা-এর প্রেক্ষিতে প্রাসঙ্গিক কল্লোল সম্পাদিত ‘‌উদ্বাস্তু কলোনির কথা— স্মৃতিকথা সংকলন’। অজিত রায়ের লেখা ‘‌হিরণ্যরেতা’‌ ফিরিয়ে দেবে নস্টালজিয়ার জগৎ। শঙ্কর গুহনিয়োগী এবং এ কে রায় অন্য ঘরানার বাম আন্দোলনের দুই উজ্জ্বল নাম বিষয়। বাঙালি মননের খোঁজ করতে গেলে তাকাতে হয় ষাট–সত্তর দশকে। কিছু ব্যক্তিগত স্মৃতিচারণ এবং নিজস্ব গদ্যে সঞ্জয় মুখোপাধ্যায় লিখেছেন ‘‌পাঁচ মাথার মোড়’। প্রাত্যহিক জীবনে হঠাৎ ব্লেডের টান, মার–‌খাওয়া সময়কে ডোরাকাটা বাঘের মতো দেখতে চেয়েছেন জয়ন্ত দে তাঁর ‘‌পেন্ডুলাম’‌ গল্প সঙ্কলনে। সাহিত্যিক অমর মিত্র ‘‌হারিয়ে যাওয়া গল্প’‌ সঙ্কলনে খুঁজে এনেছেন বাংলা সাহিত্যের বেশ কিছু শক্তিমান লেখককে। যাঁরা গল্প লিখতে লিখতে থেমে গিয়েছিলেন অজ্ঞাত কারণে বা অকালমৃত্যুতে। ইরানি বন্ধুদের বাড়িতে  থাকা, পাত–‌পেড়ে খাওয়া, ঘোরা, আড্ডা। আশ্চর্য অভিজ্ঞতাই নীলাঞ্জন হাজরার ‘‌ইরানে’। একলা নারী বন্ধ ফ্ল্যাটে বসে সঙ্গ চায়। মেঘের কথা ভাবে, ভাবে বৃষ্টিদিনের কথা। আর এসবের মধ্যেই পুলিশি প্রহরায় সবুজ ফসলি জমি হাতছাড়া হয়ে যায় কৃষকের। বাতাসে ভেসে বেড়ায় মৃত্যুর ঘ্রাণ। সেই ঘ্রাণকেই মলাটবন্দী করেছেন অমর মিত্র ‘এখন মৃত্যুর ঘ্রাণ’–‌এ‌। অন্যদিকে বিপুল দাসের ‘‌সরমার সন্ততি’‌ উপন্যাসে উঠে এসেছে উত্তরবঙ্গের রাজবংশী জোতদার ভান্ডি সিং–‌এর দুরন্ত বাসনা আর তার ছেলে রূপলালের আত্মপরিচয়ের উৎসসন্ধানের যাত্রা।‌ ■


অভিযান
শ্রীকৃষ্ণ যখন ধর্মবিপ্লবী

অভিযান পাবলিসার্স থেকে বেরোচ্ছে বিপ্লবী দেশপ্রেমিক শাসক শমসের গাজির অনালোকিত জীবন ‘‌হীরকডানা’। লেখক স্বকৃত নোমান। পূর্ব ও মধ্যভারতের জনপ্রিয় লোকসঙ্গীত ঝুমুর গান নিয়ে ‘‌ঝুমুর সমগ্র’ কিরীটি মাহাতোর উল্লেখ্য গবেষণাকাজ। ভারতের ছটি আস্তিক দর্শনের পরিচয় এবং ঈশ্বরকৃষ্ণের পূর্বকালীন ২৭জন সাংখ্যাচার্য ও তাঁদের সাংখ্যমত তুলে ধরা হয়েছে ‘‌সমগ্র সাংখ্য সমীক্ষা:‌ প্রাচীনতা আধুনিকতা ও উপযোগিতা’য়। লেখক শম্ভুনাথ চক্রবর্তী। ‌আনুমানিক খ্রিস্টপূর্ব চতুর্থ শতকের মিথ তীর্থঙ্কর মল্লিনাথের জীবনকে কেন্দ্র করে তৎকালীন ভারতের এক অন্য কাহিনীর ছবি ধরা পড়বে তুষারকান্তি রায়ের ঐতিহাসিক উপন্যাস ‘‌তীর্থঙ্কর মল্লিনাথ’‌–এ। গীতায় শ্রীকৃষ্ণের ধর্ম সম্পর্কে বিপ্লবাত্মক মনোভঙ্গিকে মলাটবন্দি করেছেন সুধীর দত্ত, প্রবন্ধের বই ‘‌ধর্মক্ষেত্রে কুরুক্ষেত্র’‌য়। ■

সঙ্কলন: লোপামুদ্রা ভৌমিক

জনপ্রিয়

Back To Top