আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ যারা নিজেদের জিন্সই সামলাতে পারছে না তারা কী করে মেয়েদের সুরক্ষা দেবে। এযুগের ছেলেদের ফ্যাশন এবং চেহারা নিয়ে এই প্রশ্নই তুললেন রাজস্থানের মহিলা কমিশনের চেয়ারপার্সন সুমন শর্মা। বুধবার সন্ধ্যায় জয়পুরে একটি অনুষ্ঠানে তিনি বলেন, এক সময় মেয়েরা চওড়া রোমশ ছাতির পুরুষদের জীবনসঙ্গী বা প্রেমিক হিসেবে কামনা করত। অথচ আজকের যুগের ছেলেদের কানে দুল, নির্লোম শরীর, হাতে রকমারি বালা, কারও বা পনিটেল বাঁধা চুল, কোমর থেকে প্রায় ঝুলে পড়া জিন্স। তাঁর অবাক প্রশ্ন, যাদের ছাতি চওড়া নয়, যারা নিজেদের পোশাকই সামলাতে পারছে না তারা কীভাবে বোন বা বান্ধবীদের সুরক্ষা করবে। যেখানে মেয়েরা নিজেদের জিরো ফিগার করতে চেষ্টার ত্রুটি রাখে না সেখানে ছেলেরা কেন নিজেদের চেহারা তৈরিতে মনযোগী নয়। এব্যাপারে সুমন শর্মার অভিভাবকদের পরামর্শ, ছোট থেকেই সন্তানদের মধ্যে সেই জ্ঞানের পাঠ দিতে হবে যাতে তারা নিজেদের ফ্যাশন আইকন না ভেবে ঠিকভাবে গড়ে ওঠে। সুমন আরও বলেছেন, স্বাধীনতার নামে মেয়েরাও যেন এমন পরিস্থিতি না তৈরি করে যাতে সমাজের ভারসাম্য নষ্ট হয়। কারণ, যেমন পুরুষদের এগিয়ে যাওয়ার জন্য নারীদের সমর্থন প্রয়োজন, তেমনই পুরুষদের পিছনে ফেলে রেখেও বেশি দূর এগতে পারবে না নারীরাও। সমাজে ভারসাম্য বজায় রাখতে দু’‌তরফেরই পরস্পরের প্রতি সমর্থন প্রয়োজন। ‌‌

জনপ্রিয়
আজকাল ব্লগ

Back To Top