প্রদীপ দে, বহরমপুর: এর আগে বর্ধমানে বিয়েতে উপহার হিসেবে নববধূকে দেওয়া হয়েছিল পেঁয়াজ। এবার বিয়ের বউভাতে করা হল পেঁয়াজের গেট। লালবাগ শহরের নাকুড়তলায় হয় এমন গেট। আর মহার্ঘ পেঁয়াজের গেট দেখতে শুক্রবার সকাল থেকেই মানুষের ভিড় উপচে পড়ে। পেঁয়াজ এখনও ১২০–১৩০ টাকা কিলোগ্রাম। মানুষের ধরাছোঁয়ার বাইরে। 
 এমন অবস্থায় বুধবার বিয়ে হয় লালবাগের নাকুড়তলার রঞ্জিত মণ্ডলের। নববধূ পূজা সরকার। বিয়ের জন্য অন্য কিছু দিয়ে গেট না করে পাত্র রঞ্জিত মনে মনে ঠিক করেন, পেঁয়াজ দিয়ে গেট করবেন। সেই মতো শিল্পীকে খবর দেন। শিল্পী উপাশ মণ্ডল জানিয়ে দেন, কোনও সমস্যা হবে না। পেঁয়াজ দিয়েই গেট হবে। সেই মতো শুরু হয় পেঁয়াজ দিয়ে গেট। দু’‌দিন লাগে গেট করতে। মোট ৩০ কিলো পেঁয়াজ লেগেছে। গেটের মাথায় যে প্রজাপতি করা হয়েছে, সেটি পুরো পেঁয়াজ দিয়ে। লাল রঙের পেঁয়াজে প্রজাপতি উড়ছে। গেটের দুধারে লেখা, পেঁয়াজ লাগান, দেশ বাঁচান। নীচে পেঁয়াজ গাছ–সহ রাখা। এখানে ওখানে ছোট ছোট গাছ, তার মধ্যে পেঁয়াজ ঝুলছে। রঞ্জিত বললেন, ‘‌আমার বরাবর নতুন কিছু করার ইচ্ছে। এবার দেখলাম, পেঁয়াজ চড়া দামে বিক্রি হচ্ছে। অথচ পেঁয়াজ ছাড়া এক মুহূর্ত চলবে না। সেজন্য পেঁয়াজ দিয়ে গেট করে মানুষদের বলতে চাইছি, ঘরে ঘরে পেঁয়াজ লাগান।’‌ আর নববধূ পূজার কথা, ‘‌এমন গেট দেখে সত্যি হতবাক হয়ে গেছি।’‌ এলাকার মানুষও পেঁয়াজ গেট দেখে আনন্দিত।

বউভাতের অনুষ্ঠানে পেঁয়াজের গেট। ছবি:‌ চয়ন মজুমদার‌ 

জনপ্রিয়

Back To Top