আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ একাধিক ট্রেনের ২৬১টা স্লিপার ক্লাস বা দ্বিতীয় শ্রেণির কামরাকে আইসোলেশন ওয়ার্ডে রূপান্তরিত করল ইস্ট কোস্ট রেলওয়ে বা ইসিওআর। কোভিড–১৯–এর চিকিৎসায় সাহায্যার্থে এবং হাসপাতালের অভাব দূর করতে তাদের বিভিন্ন ট্রেনের মোট ৫০০টা কোচকে আইসোলেশন ওয়ার্ডে পরিণত করার উদ্যোগ নিয়েছে রেল। ইসিওআর জানিয়েছে, তাদের বিভিন্ন ওয়র্কশপ বা কর্মশালায় এই রূপান্তরকরণগুলো হয়েছে এবং ওই আইসোলেশন ওয়ার্ড–কোচগুলো ইসিওআর–এর অধীনস্থ বিভিন্ন স্টেশনে রাখা হয়েছে। যেমন মঞ্চেশ্বর ওয়র্কশপে ৫১টা, পুরীতে ৩৯টা, সম্বলপুরে ৩২টা, বিশাখাপত্তনমে ৬০টা, খুরদা রোডে ৩৩টা কোচ আইসোলেশনে রূপান্তরিত করা হয়েছে। ইসিওআর–এর তরফে জানানো হয়েছে, রোগীদের সুবাধার্থে কোচের জানালায় মশারি, মগ, বালতি সহ একটা স্নানাগার, দুটো শৌচাগার রয়েছে। মাঝের বার্থ সরিয়ে দেওয়া হয়েছে। প্রতিটা কোচে ছটা করে তরল সাবান, জলের বোতল রাখার চারটে খোপ, তিনটে করে ডাস্টবিন, ল্যাপটপ এবং মোবাইল চার্জিং পয়েন্ট, বালিশ, বেডশিট, অক্সিজেন সিলিন্ডারের ব্যবস্থা রয়েছে। প্রতিটা কোচের প্রথম কেবিন ওষুধপত্র রাখার গুদামঘর হিসেবে ব্যবহৃত হবে। ইসিওআর–এর কর্তা শাক্য আচার্য জানালেন, ভুবনেশ্বর, পুরী, খুরদা রোড এবং সম্বলপুরে দুটো করে ট্রেন, বিশাখাপত্তনমে তিনটে ট্রেন, বিজয়নগরম, তিতলাগড়, এবং কটকে একটা করে ট্রেন রাখা হয়েছে। শুধু কোভিড–১৯ রোগীই নয়, যেকোনও বিপদে এই ট্রেনগুলো হাসপাতালের কাজ করতে সক্ষম।
ছবি:‌ এএনআই

জনপ্রিয়

Back To Top