আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ ভোটে জিতলে শহরে চালু করা হবে কফি শপ। যেখানে বসে মনের মানুষের সঙ্গে দু’‌দণ্ড মনের কথা বলা যাবে। মোদ্দা কথা, ডেট করা যাবে। এই প্রতিশ্রুতি দিল কংগ্রেস। গুজরাটের ভদোদরায়। সেই নিয়েই বিতর্ক। শাসকদল বিজেপি–র অভিযোগ, কংগ্রেস আসলে ভারতীয় সংস্কৃতির কিছুই বোঝে না। পাল্টা কংগ্রেসের দাবি, যুগ বদলাচ্ছে। সেই মতোই চলতে হবে।
২১ ফেব্রুয়ারি গুজরাটের ছয় শহরে পুরনির্বাচন— আমেদাবাদ, সুরাট, রাজকোট, ভদোদরা, জামনগর, ভাবনগর। ভদোদরায় কংগ্রেস প্রতিশ্রুতি দিল, জিতলে ডেটিং করা যাবে, এমন কফি শপ খোলা হবে। সঙ্গে সঙ্গে তেড়েফঁুড়ে উঠল বিজেপি। ভদোদরার বিজেপি প্রেসিডেন্ট বিজয় শাহ বললেন, ‘‌ভারতীয় সংস্কৃতিকে কখনওই নিজের মনে করেনি কংগ্রেস। ডেটিং পাশ্চাত্যের বিষয়। সেখানকার মানুষের ডেট করার প্রয়োজন হয়, কারণ তাঁরা পরিবারের সঙ্গে থাকেন না। নিজেদের ভাবনাচিন্তা শেয়ার করার জন্যই তাঁরা ডেট করেন। ভারতে, বিশেষত গুজরাটে সকলে যৌথ পরিবারে থাকেন। পরিবারে অনেক লোক থাকে। তাঁদের সঙ্গেই ভাবনাচিন্তা শেয়ার করেন। এখানে ডেটিংয়ের দরকার নেই।’
বিজয় শাহ এখানেই থামলেন না। তাঁর দাবি, ‘‌ডেটিংয়ের সঙ্গে ভাবাবেগের কোনও যোগ নেই। পুরোটাই শারীরিক আকর্ষণ।’‌ তিনি আঙুল তুললেন কংগ্রেসের দিকে। বললেন, ‘‌ডেটিংয়ের পর পানীয় ও মাদকেরও প্রচার শুরু করবে ওরা। আবার একটি সম্প্রদায় রয়েছে, যারা হিন্দু মেয়েদের প্ররোচনা দেয়। ডেটিং লাভ জেহাদেও প্ররোচনা দিতে পারে। পরের বিধানসভা নির্বাচনে আমরা লাভ জেহাদের বিরুদ্ধে আইন আনব।’‌ 
কংগ্রেসের চন্দ্রকান্ত শ্রীবাস্তব অবশ্য এসব মানলেন না। বললেন, ‘‌সব মুদ্রার দু’‌পিঠ থাকে। সব কিছু নিয়েই কিছু লোকের সমস্যা হয়। তবে মানুষের জন্য যেটা ভালো, সেই কাজি করব আমরা। সময়ের সঙ্গে সঙ্গে আমাদের বদলানো দরকার।’‌  

জনপ্রিয়
আজকাল ব্লগ

Back To Top