প্রিয়দর্শী বন্দ্যোপাধ্যায়, হাওড়া: বালির নিহত পরিবেশকর্মী তপন দত্তর স্ত্রী প্রতিমা দত্ত গ্রেপ্তার হলেন। শনিবার ভোরে বালি জগাছা ব্লকের সাঁপুইপাড়ার বাড়ি থেকে প্রতিমা দত্তকে গ্রেপ্তার করা হয়। এদিন আদালতে পেশ করা হলে তাঁকে ৪ দিন জেল হেফাজতে রাখার নির্দেশ দিয়েছে আদালত।
অসিত দত্ত নামে এলাকারই এক কেব্‌ল ব্যবসায়ী ১০ মার্চ প্রতিমার বিরুদ্ধে পুলিসে অভিযোগ দায়ের করেন। অভিযোগে অসিত জানান, প্রতিমা তঁাকে ব্যবসা বন্ধ করে দিতে হুমকি দেন। এজন্য ৫০ হাজার টাকার প্রস্তাব দেন। রাজি না হওয়ায় প্রাণনাশের হুমকি দেন। অসিতের অভিযোগ, প্রতিমাদেরও কেব্‌লের ব্যবসা আছে। কিন্তু তিনি তঁাদের চেয়ে কম টাকায় কেব্‌লের সংযোগ দেওয়ায় ব্যবসায়িক শত্রুতার জেরে হুমকি দেওয়া হয়। কেব্‌লের তারও চুরি করে নেওয়া হয়। তাই তিনি অভিযোগ দায়ের করেছিলেন। প্রতিমা দত্তও পাল্টা অভিযোগ দায়ের করেছিলেন। হাওড়া আদালতে আগাম জামিনের আবেদনও করেছিলেন। তঁার সেই আবেদন শুক্রবার খারিজ হয়ে যায়। এরপর শনিবার তঁার বাড়িতে তল্লাশি চালায় নিশ্চিন্দা থানার পুলিস। গ্রেপ্তার করার পাশাপাশি তঁার বাড়ি থেকে প্রচুর কেব্‌লের তারও উদ্ধার ও বাজেয়াপ্ত করা হয়। হাওড়ার মহিলা থানায় নিয়ে আসা হয়। গ্রেপ্তারের ঘটনাকে বামফ্রন্ট চেয়ারম্যান বিমান বসু সাজানো মামলা বলে উল্লেখ করেছেন। বলেছেন, দু’‌দিন আগেই তিনি তাঁর স্বামীর খুনের মামলায় সুপ্রিম কোর্টের রায় পেয়েছেন। যা এই সরকারের বিরুদ্ধে গেছে। তাই মিথ্যে অপবাদ দিয়ে গ্রেপ্তার। সিপিএম রাজ্য সম্পাদক সূর্যকান্ত মিশ্র বলেছেন, স্বামীর হত্যার বিচার চাওয়ায় প্রতিমা দত্তকে গ্রেপ্তার করেছে। একজন মন্ত্রীকে বাঁচাতেই পুলিসের এই তৎপরতা। অবিলম্বে প্রতিমা দত্তকে নিঃশর্তে মুক্তি দেওয়া হোক। এদিকে, ‘‌আক্রান্ত আমরা’‌র অন্যতম সদস্য প্রতিমা দত্ত‌র গ্রেপ্তারের খবর পেয়ে অম্বিকেশ মহাপাত্রের নেতৃত্বে এক প্রতিনিধিদল হাওড়া আদালত চত্বরে বিক্ষোভ দেখায়। অম্বিকেশবাবু বলেন, ‘‌প্রতিমা দেবী স্বামীর খুনের বিচার পেতে সিবিআই তদন্তের দাবিতে লড়াই করছেন। তাই তঁাকে পরিকল্পিতভাবে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।’‌ হাওড়া সিটি পুলিসের এক কর্তা বলেন, নির্দিষ্ট অভিযোগের ভিত্তিতে প্রতিমা দত্তকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তার বিরুদ্ধে ৪৪৭, ৪২৭, ৩৪১, ৩৭৯, ৫০৬, ৩৪ ধারায় মামলা রুজু করা হয়েছে। দু’‌পক্ষের অভিযোগই খতিয়ে দেখা হচ্ছে।‌ আদালতে যাওয়ার পথে প্রতিমা দেবী অসুস্থ হয়ে পড়েন। তাঁকে হাওড়া জেলা হাসপাতালে নিয়ে 
যাওয়া হয়। পরে আদালতে পেশ করা হলে জেল হেফাজতের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

 

হাওড়া আদালতে অসুস্থ প্রতিমা দত্তকে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে হাসপাতালে। ছবি:‌ কৌশিক কোলে‌‌‌‌

Back To Top