আজকালের প্রতিবেদন,পুরুলিয়া: প্রয়াত বাম নেতা নকুল মাহাতোর স্মরণসভা অনুষ্ঠিত হল বৃহস্পতিবার। পুরুলিয়ার নিস্তারিণী মহিলা মহাবিদ্যালয়ে সিপিএমের জেলা কমিটির ডাকে আয়োজিত এই সভায় দলমত নির্বিশেষে মানুষের উপস্থিতিতে রাজনৈতিক ময়দানে প্রয়াত নেতার অবদান তুলে ধরা হয়। হাতের তালুর মতো গোটা জেলাকে চিনতেন নকুল মাহাত। উন্নয়নে তার অবদানের কথা তুলে ধরেন এদিনের সভায় উপস্থিত বামফ্রন্টের চেয়ারম্যান বিমান বসু, কংগ্রেস বিধায়কনেপাল মাহাতো, জেলা পরিষদের সভাধিপতি সৃষ্টিধর মাহাতো এবং বিজেপির সনাতন মাহাতো প্রমুখ। ছিলেন বাম শরিক দলগুলির জেলা নেতৃবৃন্দ। এদিনের অনুষ্ঠানে নকুল মাহাতোর কাজের দিকগুলি উঠে আসে। তিনি জেলার শিক্ষা থেকে উন্নয়নের কাজে যে ভাবে কাজ করেছেন, তা বলে বোঝানো যাবে না বলে জানান নেতারা। বিমান বসু বলেন, ‘‌নকুলবাবু বামপন্থীদের নেতা হয়েও মানুষের মধ্যে ছিলেন। এ জেলায় শিক্ষার বিস্তারে নিরলস পরিশ্রম করে গেছেন। শিক্ষার আলো ঘরে ঘরে পৌঁছে দেওয়ার কারিগর ছিলেন তিনি।’‌ দেশ বিদেশে বিভিন্ন অনুষ্ঠানে ছৌ, ঝুমুরকে তুলে ধরেছেন তিনি। বিদেশী প্রতিনিধিদের কাছে তুলে ধরতেন জেলার সংস্কৃতিকে বলে জানান বিমানবাবু। এই জেলার ১৭০টি গ্রাম পঞ্চায়েতকে হাতের তালুর মতো চিনতেন নকুল মাহাতো। অন্যদের মত, জেলা চাওয়া–পাওয়া নিয়ে সরব ছিলেন তিনি। উন্নয়নে সবসময় দরাজ ছিলেন প্রয়াত ওই বাম নেতা। নেপাল মাহাতো বলেন, ‘‌সততা নিষ্ঠা ছিল তার মধ্যে। কাকুর মতো দেখতাম। তার মতো মানুষ চলে যাওয়ায় জেলার প্রভূত ক্ষতি হল।’‌ এই অনুষ্ঠানে নকুল মাহাতোর সঙ্গে কাজ করা সিপিএম কর্মী সমর্থকদের মধ্যে ব্যাপক উৎসাহ দেখা গেছে। একদা সাংসদ, সদা স্বচ্ছ ভাবমূর্তির নকুল মাহাতোর মৃত্যু আদতে বামপন্থী রাজনীতির ক্ষতি বলেই মত তাঁদের।

স্মরণসভায় বিমান বসু। ছবি: দীপেন গুপ্ত

বুধবার ৪ অক্টোবর, ২০১৭

রাত পোহালেই কোজাগরি লক্ষীপুজো

মঙ্গলবার ৩ অক্টোবর, ২০১৭

সিঁদুর খেলায় তারকা সমাবেশ

মঙ্গলবার ৩ অক্টোবর, ২০১৭

কলকাতা পুজো কার্নিভাল

বৃহস্পতিবার ২৪ আগষ্ট, ২০১৭

গণেশ বন্দনায় মেতেছে বলিউড

বুধবার ২৩ আগষ্ট, ২০১৭

ফুলে ঢাকা চিলির মরুভূমি

রবিবার ৬ আগষ্ট, ২০১৭

পুতিনের মেমেতে ছয়লাপ রাশিয়া

শনিবার ৮ জুলাই, ২০১৭

বঙ্গ সংস্কৃতি, আমেরিকা

শনিবার ১ জুলাই, ২০১৭

বঙ্গ সংস্কৃতি অস্ট্রেলিয়া

শনিবার ১৪ অক্টোবর, ২০১৭

শহীদ অমিতাভকে শেষ শ্রদ্ধা

সোমবার ৩১ জুলাই, ২০১৭

সারমেয় সজ্জা

Back To Top