আজকালের প্রতিবেদন, পূর্ব বর্ধমান: রাষ্ট্রীয় স্বাস্থ্য বীমা যোজনার কার্ড থাকলেই এবার থেকে গরিব রোগীদের যে কোনও চিকিৎসা সম্পূর্ণ বিনামূল্যে এবং ভিআইপি–র মতো চিকিৎসা করা হবে বলে জানালেন জেলা সভাধিপতি দেবু টুডু। এই ব্যবস্থা ২০১৪ সাল থেকে চালু থাকলেও এখনও পর্যন্ত তা সেভাবে প্রচারের আলোয় না আসায় বর্ধমান জেলা পরিষদের উদ্যোগে এবার সেই প্রচার জোরদার করার ব্যাপক উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। এব্যাপারে বুধবার জেলা পরিষদের মিটিং হলে স্বাস্থ্য বিষয়ক স্ট্যান্ডিং কমিটির একটি গুরুত্বপূর্ণ বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। বৈঠকে জেলা পরিষদের সভাধিপতি দেবু টুডু, স্বাস্থ্য বিষয়ক কর্মাধ্যক্ষ গার্গি নাহা–সহ আধিকারিকরা উপস্থিত ছিলেন।
বৈঠক শেষে সভাধিপতি দেবু টুডু জানান, এবার থেকে গরিব রোগীদের যে কোনও চিকিৎসা সম্পূর্ণ বিনামূল্যে এবং ভিআইপি–র মতো চিকিৎসা করা হবে। সে ক্ষেত্রে তাঁদের রাষ্ট্রীয় স্বাস্থ্য বীমা যোজনার কার্ড থাকতে হবে। আমরা এরাজ্যে ক্ষমতায় আসার পরই খাদ্য, বস্ত্র ও বাসস্থানের ওপর বিশেষ জোর দেওয়ার পাশাপাশি স্বাস্থ্যের ওপরও জোর দেওয়া হয়েছে। রাজ্য সরকারের উদ্যোগে ২০১৪ সাল থেকে আমরা প্রতিটি গরিব মানুষের কাছে তার ন্যায্য প্রাপ্তি হিসেবে সুস্বাস্থ্য ফিরিয়ে দেওয়ার ব্যাপারে অঙ্গিকার বদ্ধ। তাই আমরা স্বাস্থ্য পরিষেবার ওপর আলাদা করে নজর দিয়েছি। তিনি জানান, স্বাস্থ্য বীমা কার্ড থাকলেই রাজ্যের যে কোনও সরকারি হাসপাতালে ভর্তি থেকে যে কোনও রোগের চিকিৎসা করাতে পারবেন। তার জন্য একটি পয়সাও ওই রোগীকে খরচ করতে হবে না। এমনকী রোগ সেরে গেলে সেই রোগীকে বাড়ি যাওয়ার জন্য তিনি যদি এই জেলার বাসিন্দা হয়ে থাকেন তাহলে তাঁর হাতে নগদ ৩০০ টাকা তুলে দেওয়া হবে বাড়ি ফেরার খরচ বাবদ। আর তিনি যদি অন্য জেলার বাসিন্দা হন তাহলে পাবেন নগদ ৫০০ টাকা। সরকারি হাসপাতালে ভর্তি হওয়া থেকে বাড়ি ফেরা পর্যন্ত একটি পয়সাও খরচ করতে হবে না তাঁকে। আজ এব্যাপারে জেলা পরিষদের সকলকে অবহিত করা হয়েছে।

চলছে বৈঠক। ছবি:‌ ‌বিজয়প্রকাশ দাস

জনপ্রিয়

Back To Top