আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ ‌ ৯১ বছরে স্নাতকোত্তর ডিগ্রি হাতে নিয়ে নিজের স্বপ্ন স্বার্থক করলে থাইল্যান্ডের বৃদ্ধা।  ল্যামপাঙ প্রদেশের বাসিন্দা কিমলান জিনাকুল নামে ওই বৃদ্ধার একটাই ইচ্ছে ছিল। সেই অদম্য ইচ্ছে পূরণের জন্য লড়াই করেছিলেন তিনি। সম্পন্ন পরিবারের মেয়ে হওয়ায় ভাল স্কুলে পড়ার সুযোগ পেয়েছিলেন। কিন্তু কলেজে–বিশ্ববিদ্যালয়ে যাওয়ার সুযোগ হয়নি। অল্প বয়সেই বিয়ে দিয়ে দিয়েছিলেন মা–বাবা। সংসার আর সন্তান বড় করতে করতে পড়াশোনার ইচ্ছেটা এককথায় ধামাচাপা পড়ে গিয়েছিল। তবে ছেলে মেয়েদের উৎসাহ দিয়ে গিয়েছেন। তাঁর ৫ সন্তানের মধ্যে স্নাতকোত্তর। একজন এখন আমেরিকায় গবেষণা করছেন।
ছেলে মেয়েরা বড় হওয়ার পরেই ফের পড়াশোনার ইচ্ছেটা জেগে উঠেছিল বলে জানান কিমলান। প্রথম সন্তান বিশ্ববিদ্যালয়ে যাওয়া শুরু করার পরে একটি মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হন। কিন্তু দুর্ভাগ্যের বিষয় সেবছরই তাঁর প্রথম সন্তানের মৃত্যু হয়। একেবারেই ভেঙে পড়েছিলেন কিমলান। তাঁর বয়স তখন ৭২। প্রায় বছর দশের পর ৮৫ বছর বয়সে ফের মনের জোর করে ভর্তি হন বিশ্ববিদ্যালয়ে। এবার আর কোনও বাধা আসেনি। কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয় মিলিয়ে অবশেষে ৯১ বছর বয়সে নিজের স্বপ্ন পূরণ করলেন কিমলান। 

ডিগ্রি হাতে নেওয়ার পর সন্তানদের সঙ্গে ৯১ বছরের কিমলান জিনাকুল।

Back To Top