সংবাদ সংস্থা,পুনে: প্রতিষ্ঠানের হাজারও সমস্যা। এর জেরে পঠনপাঠন ধাক্কা খাচ্ছে। এ নিয়ে সদ্যনিযুক্ত চেয়ারম্যান অনুপম খেরকে ‘‌খোলা চিঠি’‌ দিলেন ফিল্ম অ্যান্ড টেলিভিশন ইনস্টিটিউট অফ ইন্ডিয়া–র পড়ুয়ারা। ৯টি সমস্যার বিবরণ দিয়ে প্রতিকার চেয়েছেন তাঁরা। বুঝিয়েছেন, অনুপম খেরের ওপর ভরসাই করতে চান তাঁরা। এঁরাই দু’‌বছর আগে গজেন্দ্র চৌহানের নিয়োগের বিরুদ্ধে প্রতিবাদে মুখর হয়েছিলেন। ফিল্ম ইনস্টিটিউটশন কীভাবে তহবিল সংগ্রহের আখড়া হয়েছে চিঠিতে তা তুলে ধরেছেন পড়ুয়ারা। লিখেছেন, চলচ্চিত্র নির্মাণের খঁুটিনাটি বিভিন্ন দিক শেখার আদর্শ প্রতিষ্ঠান পুনের ফিল্ম ইনস্টিটিউট। কিন্তু ধীরে ধীরে সেই উদ্দেশ্য গৌণ হচ্ছে। তহবিল সংগ্রহই এখন মুখ্য হয়েছে। টাকার জন্য কম সময়ের ক্র‌্যাশ কোর্স করানো হচ্ছে। যেমন, ২০ হাজার টাকার বিনিময়ে ২০ দিনের কোর্স টেলিভিশনের জন্য ফিকশান লেখার। এত কম সময়ে কোনও জ্ঞান অর্জন সম্ভব?‌  কর্তৃপক্ষের অযথা খরচের প্রবণতায় তাঁরা উদ্বিগ্ন। অকারণে ‘‌ওপেন ডে’‌,‘‌ফাউন্ডেশন ডে’‌ ইত্যাদি উপলক্ষে অর্থ ব্যয় করা হচ্ছে। পড়ুয়ারা প্রশ্ন তুলেছেন নতুন পাঠক্রম নিয়ে। এক বছরের নতুন পাঠক্রমে ক্লাস এবং কর্মশালার সংখ্যা কমিয়ে দেওয়া হয়েছে। এ ব্যাপারে শিক্ষক–শিক্ষিকারাও ওয়াকিবহাল নন। বিভ্রান্তি তৈরি হয়েছে। তৃতীয় সেমিস্টারে সংলাপ অনুশীলনে জোর দেওয়া হয়েছে। তিন দিনের ৮ ঘণ্টার শিফট কমিয়ে ২ দিনের ১২ ঘণ্টার শিফট করা হয়েছে। অভিনেতার পাশাপাশি লাইটম্যান, মেকআপ আর্টিস্ট অন্য কারিগরদের ওপর অমানবিক চাপ সৃষ্টি করবে। চুক্তিভিত্তিক কর্মী সংখ্যা কমানো, সময় মতো তাঁদের পাওনা না মেটানো, কাজের সময় কমিয়ে ৫ দিন করা ইত্যাদি নিয়েও প্রশ্ন তোলা হয়েছে। তাছাড়া, দেশের বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয় এবং শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে চুক্তিভিত্তিক শিক্ষক–‌শিক্ষিকা নিয়োগ করা হচ্ছে। স্থায়ী শিক্ষক শিক্ষিকাদের মতো সুযোগ–‌সুবিধা তাঁরা পান না। কাজ হারানোর ভয় থাকে তাঁদের। এদিকটাও সদ্য নিযুক্ত চেয়ারম্যানের গোচরে এনেছেন পড়ুয়ারা। নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে সিলেবাস মাফিক নির্ধারিত প্রকল্পের কাজ শেষ করা আরেক সমস্যা। প্রজেক্টের কাজ শেষ করতে বিভিন্ন জিনিসের দরকার। কর্তৃপক্ষ তাঁদের সে সব দিচ্ছেন না। কিন্তু নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে কোর্স শেষ করার লিখিত প্রতিশ্রুতি আদায় করে নিচ্ছে। পড়ুয়াদের ক্ষোভ বেড়েছে একটি ইমেল ঘিরে। চলতি বছরের ফেব্রুয়ারি মাসে মেলটি পেয়েছে ছাত্র সংগঠন। তাতে উল্লেখ রয়েছে, অ্যাকাডেমিক কাউন্সিলের গুরুত্বপূর্ণ বৈঠকে ছাত্রদের প্রতিনিধিদের অন্তর্ভুক্ত করা হবে না। সিদ্ধান্ত গর্ভনিং কাউন্সিলের। ফঁুসছেন পড়ুয়ারা। চলচ্চিত্রকে শিল্প হিসেবে নয়, পণ্য হিসেবে দেখার তালিম দেওয়া হচ্ছে বলেও তাঁরা অভিযোগ করেছেন। ‌‌‌

অনুপম খের

বুধবার ৪ অক্টোবর, ২০১৭

রাত পোহালেই কোজাগরি লক্ষীপুজো

মঙ্গলবার ৩ অক্টোবর, ২০১৭

সিঁদুর খেলায় তারকা সমাবেশ

মঙ্গলবার ৩ অক্টোবর, ২০১৭

কলকাতা পুজো কার্নিভাল

বৃহস্পতিবার ২৪ আগষ্ট, ২০১৭

গণেশ বন্দনায় মেতেছে বলিউড

বুধবার ২৩ আগষ্ট, ২০১৭

ফুলে ঢাকা চিলির মরুভূমি

রবিবার ৬ আগষ্ট, ২০১৭

পুতিনের মেমেতে ছয়লাপ রাশিয়া

শনিবার ৮ জুলাই, ২০১৭

বঙ্গ সংস্কৃতি, আমেরিকা

শনিবার ১ জুলাই, ২০১৭

বঙ্গ সংস্কৃতি অস্ট্রেলিয়া

শনিবার ১৪ অক্টোবর, ২০১৭

শহীদ অমিতাভকে শেষ শ্রদ্ধা

সোমবার ৩১ জুলাই, ২০১৭

সারমেয় সজ্জা

Back To Top