ভোলানাথ ঘড়ই: ঠিকানা খুঁজতে ওঁরা দ্বারস্থ হলেন আধার কার্ডের। ঠিকানা পাওয়াও গেল। কিন্তু কী মুশকিল!‌ এ যে কেঁচো খুঁড়তে কেউটে!‌ ২০ বছর আগে হাসপাতালের বেডে শুইয়ে রেখে গিয়েছিল আত্মীয়রা। না, চিকিৎসা তাদের উদ্দেশ্য ছিল না। উদ্দেশ্য ‘‌আপদ’‌ বিদায়। কিছুদিন পর এলাকায় শ্রাদ্ধানুষ্ঠান করে পাড়াকে জানিয়ে দেওয়া হল ‘‌‌উনি মারা গেছেন’‌। না–‌হলে পৈতৃক সম্পত্তির ভাগ দিতে হয় যে!‌ একটি নয়, এমন একাধিক মহিলাকে খুঁজে বের করেছেন হ্যাম রেডিওর কর্মীরা। যাঁরা সাগর দত্ত স্টেট জেনারেল হাসপাতালে, বারাসত স্টেট জেনারেল হাসপাতালে, ব্যারাকপুর স্টেট জেনারেল হাসপাতালে পড়ে আছেন। চিকিৎসকরা বলছেন, এঁরা শরীরে সম্পূর্ণ সুস্থ। কিন্তু বয়সের ভারে বা অন্য কারণে কেউই ঠিক করে ঠিকানা বলতে পারছেন না। হাসপাতালের এতগুলো বেড ৮ বছর, ১২ বছর, ২০ বছর ধরে আটকে রয়েছে। বাড়ির লোকজন খোঁজও নেয় না। 
কেউটে খুঁজে বের করা উদ্দেশ্য ছিল না হ্যামকর্মীদের। শখের রেডিও হ্যাম এখন আর শুধু শখের নেই। গোটা দুনিয়ার মানুষ জানেন, যেখানে যখনই প্রাকৃতিক দুর্যোগ হয়, এলাকার পর এলাকা যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়ে, পৌঁছে যান হ্যাম রেডিওর কর্মীরা। কয়েক মুহূর্তে একটি আস্ত রেডিও স্টেশন তৈরি করে গোটা বিশ্বের সঙ্গে যোগাযোগ করিয়ে দেন বিনা পারিশ্রমিকে, কখনও বা নিজেদের খরচেই। এঁদের কেউ শিক্ষক, কেউ ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের ছাত্র, কেউ বা ছোট ব্যবসায়ী, করণিক। সমাজসেবা ও রেডিওর নেশায় হ্যামই এঁদের অবসর। এখন সারা বছর ওঁদের কাজ হল হারিয়ে যাওয়া মানুষের ঠিকানা খুঁজে তাঁদের ঘরে পৌঁছে দেওয়া। শুধু এ রাজ্যে নয়, বিহার, ওড়িশা, ছত্তিশগড়, দক্ষিণ ভারত— ইতিমধ্যেই ১২ জনকে ওঁরা পৌঁছে দিয়েছেন নিজেদের বাড়িতে। উদাসীন নাগরিককের ভাষায় ‘‌ঘরের খেয়ে বনের মোষ তাড়ান’‌ ওঁরা।
মাস তিনেক আগে ব্যারাকপুরের এসডিও পীযূষ গোস্বামী‌র ডাকে চলে গিয়েছিলেন সাগর দত্ত হাসপাতালে, ঘরের খেয়ে বনের মোষ তাড়াতে। সেখানে ১৭ জন এমন রোগী রয়েছেন। স্মৃতিভ্রষ্ট বা আংশিক স্মৃতিভ্রষ্ট। এঁদের ঠিকানা উদ্ধার করতে নেমে পড়েন হ্যাম রেডিওর অম্বরীষ নাগ বিশ্বাসরা। প্রায় তিন মাস ধরে অর্ণব রায়চৌধুরি, সৌরভ সাধুখাঁ, জয়ন্ত বৈদ্য, মানস মুখার্জি, শুভঙ্কর সাহা, সোমনাথ অধিকারী প্রায় খড়ের গাদায় সুচ খুঁজে বেড়াচ্ছেন। ইতিমধ্যেই দুজন রোগীকে চিহ্নিত করেছেন। হুগলির চন্দননগরের বাসিন্দা অনিতা চক্রবর্তী। পাড়ার ছেলেরা জানেন, অনিদি ২০ বছর আগেই মারা গেছেন। ভাই প্রদীপ চক্রবর্তী মহাকরণের কর্মী। আর একজন বরানগর তাঁতিপাড়ার বাসিন্দা। অণিমা মল্লিক। বাড়ির লোক প্রথমে চিনতেই পারছিল না। অণিমা মল্লিক মারা গেছেন ঘোষণা করে তাঁর শ্রাদ্ধানুষ্ঠানও করে ফেলেছে ভাইয়েরা। বাবা শিশির মল্লিকের সম্পত্তির ভাগ দিতে হবে বলে!‌‌ পরে স্থানীয় লোকজনের চাপে, বিশেষ করে স্থানীয় তৃণমূল কাউন্সিলর পলি কয়ালের উদ্যোগে অণিমাকে ঘরে ফিরিয়ে নিতে রাজি হয় ওরা। রবিবারই যাবে হাসপাতালে দেখতে। একই উদ্যোগ নিচ্ছে প্রশাসন–‌পুলিস চন্দননগরের অনিতা চক্রবর্তীর ক্ষেত্রেও। আবার ২০ দিন আগে দক্ষিণেশ্বর মন্দিরের কাছে ছেলে আর নাতির হাত ধরে এসেছিলেন বৃদ্ধা মিনতি দাস। ছেলে–‌নাতি উধাও। বেলঘরিয়া থানার ওসির উদ্যোগে তিনি এখন সাগর দত্ত হাসপাতালে। ঠিকানা বলতে পারছেন না, আকারে ইঙ্গিতে বাড়ির লোকেশন বলতে পারছেন এই বৃদ্ধা। আর তা থেকেই বাড়িতে পৌঁছে গেছেন হ্যামের কর্মীরা। কিন্তু ভাড়া বাড়ি ছেড়ে উধাও তারা। সব মিলিয়ে ১৭ জন রয়েছেন এই হাসপাতালে। এর মধ্যে ২ জন দক্ষিণ ভারতের। এঁদেরও ঠিকানা উদ্ধার করা গেছে, নেপথ্যের গল্প ওই একই রকম। আর সবচেয়ে আশ্চর্যের ব্যাপার, এমন রোগী মাত্রেই মহিলা। বয়স হয়ে গেলে মহিলারাই ‘‌আপদ’‌?‌ বিদায় করতে হবে?‌ সমাজ কি ক্রমশ আরও অমানবিক হয়ে চলেছে?‌ পেছনের দিকে হাঁটছে সমাজের চাকা?‌
ওয়েস্ট বেঙ্গল রেডিও ক্লাব (হ্যাম রেডিও)‌-এ‌র সম্পাদক অম্বরীষ নাগ বিশ্বাসের কথায়, প্রত্যেক বছরে এমন অসহায় ঠিকানাহীন মানুষ খুঁজে পাই, তাঁরা প্রায় সবাই–‌ই মহিলা। পুলিসের সহায়তায় অনেক কাঠখড় পুড়িয়ে তাঁদের বাড়ি ফেরাতে হয়। আত্মীয়রা, ছেলে‌মেয়েরা কেউ দায়িত্ব নিতে চায় না। ডায়মন্ডহারবার হাসপাতালেও এমন রোগী পেয়েছি। আমাদের কাজ ঠিকানা খুঁজে দেওয়া, বাকিটা প্রশাসনের দায়িত্ব। আইপিএস অফিসার অজয় রানাডের সহায়তায় সাগর থেকে এমন অনেককে ফেরত পাঠাতে পেরেছি ভিনরাজ্যে নিজের বাড়িতে। ব্যারাকপুরের এসডিও জানিয়েছেন, ব্যারাকপুর হাসপাতালেও এমন রোগী রয়েছেন। একটু দেখুন। এই সাফল্যে আমরা আনন্দিত। কিন্তু সমাজের কথা ভেবে কষ্ট লাগে। একটু সম্পত্তির লোভে এভাবে আপনজনকে ঠিকানাবিহীন করে দেয় কেউ!‌ এরা মনুষ্যপদবাচ্য!‌

সাগর দত্ত হাসপাতালে। ঠিকানাহীন রোগীদের ঠিকানা খোঁজার কাজে হ্যাম রেডিওর কর্মীরা।

বঙ্গ সংস্কৃতি অস্ট্রেলিয়া

বুধবার ৮ নভেম্বর, ২০১৭

চন্দননগরের জগদ্ধাত্রী পুজা

শুক্রবার ২৭ অক্টোবর, ২০১৭

রাত পোহালেই কোজাগরি লক্ষীপুজো

বুধবার ৪ অক্টোবর, ২০১৭

সিঁদুর খেলায় তারকা সমাবেশ

মঙ্গলবার ৩ অক্টোবর, ২০১৭

কলকাতা পুজো কার্নিভাল

মঙ্গলবার ৩ অক্টোবর, ২০১৭

গণেশ বন্দনায় মেতেছে বলিউড

বৃহস্পতিবার ২৪ আগষ্ট, ২০১৭

ফুলে ঢাকা চিলির মরুভূমি

বুধবার ২৩ আগষ্ট, ২০১৭

পুতিনের মেমেতে ছয়লাপ রাশিয়া

রবিবার ৬ আগষ্ট, ২০১৭

শহীদ অমিতাভকে শেষ শ্রদ্ধা

শনিবার ১৪ অক্টোবর, ২০১৭

সারমেয় সজ্জা

সোমবার ৩১ জুলাই, ২০১৭

Back To Top